নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: অত:পর একইদিনে আর অনুষ্ঠিত হচ্ছে না মুসলমান সম্প্রদায়ের পবিত্র আশুরা আর সনাতন ধর্মালম্বীদের বিজয়া দশমী। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে পরিবর্তিত হয়েছে মহরম উদযাপনের দিনক্ষণ। যা এখন উদযাপিত হবে বিজয়া দশমীর পরের দিন।
জানাগেছে, আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া সনাতন ধর্মালম্বীদের প্রধান ধর্মীয় অনুষ্ঠান শারদীয় দূর্গোৎসব বিজয়া দশমীতে প্রতিমা বিসর্জনের মাধ্যমে শেষ হবে ৩০ সেপ্টেম্বর। কিন্তু ঐ বিজয়া দশমীর দিনেই মুসলমান সম্প্রদায়ের পবিত্র মহরম আশুরা অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকায় একই সাথে দুটি ধর্মের মানুষদের উৎসব নির্বিঘেœ উদযাপনের লক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ প্রশাসন একাধিক উদ্যোগ নেয়ার পরামর্শ দেন পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দসহ তাজিয়া মিছিল আয়োজকদের।
এই লক্ষ্যে গত ২১ সেপ্টেম্বর জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে প্রাক পূজা নিরাপত্তা, পূজা চলাকালীন নিরাপত্তা, প্রতিমা বিসর্জণ এবং পরবর্তী নিরাপত্তা, মহররম আশুরার সার্বিক নিরাপত্তা ও বিজয়া দশমী এবং আশুরার তাজিয়া মিছিল একইদিনে অনুষ্ঠানে দুই পক্ষের সমন্বয়ের মাধ্যমে সার্বিক নিরাপত্তা বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন এবং দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মইনুল হক।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভ্রান্তিকর পোষ্ট, মন্তব্য বা ছবি আপলোড করে যেন কেউ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে না পারে সে বিষয়ে সকলকে সচেতন থাকার তাগিদ দিয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, সকল ধর্মের গণ্যমান্য ব্যক্তি, পুলিশ কর্মকর্তা, পূজা কমিটির সমন্বয়ে এলাকা ভিত্তিক সাম্প্রায়িক সম্প্রীতি রক্ষা কমিটি গঠনের পরামর্শ দেন পুলিশ সুপার।

পূজা কিংবা আশুরা উপলক্ষে কোন মেলার আয়োজন না করার পাশাপাশি আশুরার তাজিয়া মিছিলে ধাতব কোন বস্তুু সঙ্গে আনার নির্দেশনা প্রদান করেন মঈনুল হক। আর ৩০ সেপ্টেম্বর বিজয়া দশমীর দিন আশুরার তাজিয়া মিছিল সংক্ষিপ্ত করণ এবং যে সড়কে ঐ দিন তাজিয়া মিছিল বের হবে, সে সড়কে পূজা উদযাপণ পরিষদের কয়েকজন নেতাকে উপস্থিত থেকে আশুরা কমিটির নেতাদের সাথে সমন্বয় করে দুটি উৎসব সফল করার আহবান জানান এসপি।

কিন্তু শেষতক একদিনে আর অনুষ্ঠিত হচ্ছে না মহরম আর দেবী দূর্গা প্রতিমা বিসর্জন।

কারন, বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় বাংলাদেশের আকাশে ১৪৩৯ হিজরী সনের পবিত্র মুহাররম মাসের চাঁদ দেখা যাওয়ায় সারা দেশে পবিত্র আশুরা উদযাপিত হবে আগামী ১ অক্টোবর। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মোকাররম সভাকক্ষে ধর্ম সচিব মো. আনিছুর রহমানের সভাপতিত্বে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মাহর জন্য এক তাৎপর্যময় ও শোকাবহ দিন। হিজরী ৬১ সালের এই দিনে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর দৌহিত্র হজরত ইমাম হোসাইন (রা.) ও তার পরিবারের সদস্যরা ইয়াজিদের সৈন্যদের হাতে কারবালার ময়দানে শহীদ হন।

এছাড়া এই দিনে হজরত মুসা (আ.) ফেরাউনের জুলুম থেকে পরিত্রাণ লাভ করেছিলেন তার অনুসারীদের নিয়ে নীল নদ পার হয়ে। তাদের পিছু নেয়া ফেরাউন সদলবলে নীল নদে ডুবে যায়।

ফলে নারায়ণগঞ্জে দুই দিনে দুই ধর্মের মানুষই ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে শান্তি পূর্ণ ভাবে নিজেদের ধর্মীয় উৎসব উদযাপন করতে পারবেন। আর প্রশাসনকেও বাড়তি চাপ পোহাতে হবে না বলে মন্তব্য করেন সচেতন মহল। কারন, এই দুটি ধর্মীয় উৎসবই নারায়ণগঞ্জে ব্যাপক পরিসরে অনুষ্ঠিত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here