নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: সদর ইউএনও ব্যবস্থা নেয়ার পূর্বেই নিজের উপর আসা অপবাদ ঘুাঁচাতে খোদ নিজেই অবৈধ মেলা উচ্ছেদ করে দিলেন কাশীপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নং ওয়ার্ড মেম্বার আলহাজ¦ শামীম আহম্মেদ।
শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) বাদ জুম্মা স্থানীয় মুসল্লিদের সাথে নিয়ে কাশীপুর ও বক্তাবলী ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী চর রাজাপুর এলকায় মাঠে চলমান অবৈধ মেলা উচ্ছেদ করেন তিনি।

উচ্ছেদের পর শামীম আহাম্মেদ সাংবাদিকদের কাছে দাবী করেন, ‘এই মেলা কে বা কাহারা এখানে বসিয়েছিল, সেই ব্যাপারে তিনি অবগত ছিলেন না। কিন্তু বৃহস্পতিবার স্থানীয় একটি অনলাইন গণমাধ্যম এবং শুক্রবার স্থানীয় দৈনিক পত্রিকা গুলোতে এই মেলার উদ্যোক্তা হিসেবে তার নাম প্রকাশিত হয়েছে। যা কিনা ভিত্তিহীন। তাই স্থানীয় মুসল্লিদের সাথে নিয়ে এই মেলা উচ্ছেদ করে দেয়া হয়েছে।’

মেম্বার শামীম আহম্মেদ আরো বলেন, ‘আল্লাহ রাসুল পাকের দয়ায় অসহায় মানুষকে সহায়তা করার জন্য আমাদের যথেষ্ট সামর্থ্য রয়েছে। তাই মেলা বসিয়ে অর্থ আয় করার মত হীন মনমানসিকতা আমার নাই। আমি এই মেলা সম্পর্কে জানা মাত্রই শুক্রবার উচ্ছেদ করে দিলাম।’

এরআগে, ‘কাশীপুরে মেম্বারের উদ্যোগে চলছে অবৈধ মেলা, ব্যবস্থা নিচ্ছে ইউএনও’ শিরোনামে স্থানীয় গণমাধ্যম গুলোতে সংবাদ প্রকাশিত হয়। যেখানে উল্লেখ করা হয়েছিল, প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই চর রাজাপুর মাঠে কাশীপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নং ওয়ার্ড মেম্বার আলহাজ¦ শামীম আহম্মেদের উদ্যোগে পরিচালিত হচ্ছে অবৈধ মেলা। যেখানে উচ্চস্বরে সাউন্ড সিষ্টেম বাজানোর কারনে স্থানীয় প্রাথমিক সমাপনী ও আসন্ন এসএসসি পরীক্ষার্থদের পড়ালেখায় চরম বিঘœ ঘটছে বলে অভিযোগ করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। অঅর মেলার নামে জুয়ার বোর্ড পরিচালনাসহ মাদক সেবনের সুবিদার্থে বিভিন্ন স্পট করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়।

আর এই অবৈধ মেলার সংবাদ পাওয়া মাত্রই তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নেয়ার আশ^াস দিয়েছেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাসনীম জেবিন বিনতে শেখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here