নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: অবশেষে সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমানের পূর্ব ঘোষণাই বাস্তবায়ন করলো নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির ২০১৭-১৮ ইং বর্ষে নির্বাচনে গঠিত আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বোর্ড।
অর্থাৎ এড. হাসান ফেরদ্যেস জুয়েল ও এড. মহসীন মিয়ার নেতৃত্বেই গঠিত হচ্ছে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের প্যানেল।

শনিবার (৬ জানুয়ারী) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতে পিপি এড. ওয়াজেদ আলীর সম্মেলন কক্ষে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভায় এই সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এড. আবু হাসনাত মো: শহীদ বাদল, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এড. খোকন সাহা, আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বোর্ডের আহ্বায়ক এড. আব্দুর রশিদ, সদস্য সচিব এড. আনিসুর রহমান দিপু ও যুগ্ম সদস্য সচিব এড. ওয়াজেদ আলী খোকন।

সভা শেষে মনোনয়ন বোর্ডের আহ্বায়ক এড. আব্দুর রশিদ সাংবাদিকদের জানান, ‘সভাপতি প্রার্থী হিসেবে এড. হাসান ফেরদৌস জুয়েল ও সাধারন সম্পাদক প্রার্থী হিসেবে এড. মহসীন মিয়ার নেতৃত্বেই সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের প্যানেল গঠন করা হয়েছে। সন্ধ্যায় মনোনয়ন বোর্ডের যুগ্ম সচিব এড. ওয়াজেদ আলী খোকন সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক প্রার্থীকে নিয়ে আলোচনা করে ১৭ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ প্যানেল ঘোষণা করবেন।’

এরআগে, বুধবার (৩ জানুয়ারী) দুপুরে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের চাঁনমারী হিমালয় চাইনিজ রেস্টুরেন্টে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বোর্ডের রুদ্ধদ্বার বৈঠকে ১৭ টি পদের বিপরীতে আওয়ামীলীগের প্যানেল থেকে নির্বাচনে অংশ গ্রহণেচ্ছু ৩২ জন প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র নিয়ে পর্যালোচনা করা হয়।

সভায় নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে আওয়ামীলীগ সমর্থীত প্যাণেল গঠনের ক্ষেত্রে গত বছর আইনজীবী সমিতি নির্বাচনের আগে দেয়া ঘোষনা অনুযায়ী এড. হাসান ফেরদৌস জুয়েলকে সভাপতি ও এড. মহসীন মিয়াকে সাধারণ সম্পাদক করে প্যাণেল নির্ধারনের জন্য মনোনয়ন বোর্ডকে অনুরোধ করেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ এ কে এম শামীম ওসমান।

তিনি আইনজীবী নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেছিলেন, ‘আপনারাই আমাকে দিয়ে গত বছর জুয়েল ও মহসীনের নাম ঘোষণা করিয়েছিলেন। তাই এবছর তাদের নেতৃত্বেই প্যানেল গঠন করতে হবে।’

উল্লেখ্য, এবারের আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে আওয়ামীলীগের প্যাণেল থেকে নির্বাচনের লক্ষ্যে সভাপতি পদ প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছিলেন, সাবেক পিপি এড. আসাদুজ্জামান, এড. মো. কামরুল আহসান, এড. হাসান ফেরদৌস জুয়েল, এড. এ এম এম একরামুল হক, এড. রাশেদ মোল্লা।

আর সাধারন সম্পাদক পদ প্রার্থী ছিলেন, এড. হাবিব আল মুজাহিদ পলু, এড. মহসীন মিয়া, এড. আনোয়ার হোসেন, এড. শরৎ চন্দ্র মন্ডল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here