নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, রূপগঞ্জ প্রতিনিধি: বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য এড. তৈমূর আলম খন্দকার বলেছেন, অবিলম্বে রূপগঞ্জের জলাবদ্ধতা নিরসন করা প্রয়োজন। এখানে বসবাসরত হাজার হাজার বাসিন্দা এখন নানা পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত। কোমলমতি শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ের যেতে পারছেনা। রূপগঞ্জের তিনটি সেচ প্রকল্পের ভেতর বৃষ্টির পানি আটকে গত ৫ মাস ধরে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। হাজার হাজার বিঘা ফসলি জমি পতিত পড়ে রয়েছে।

শুক্রবার (৬ অক্টোবর) দুপুরে রূপগঞ্জের যাত্রামুড়া এলাকায় আয়োজিত নারায়ণগঞ্জ জেলা ওলামাদলের সভাপতি সামছুর রহমান খান বেনুর সুস্থ্যতা কামনায় মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

তারাব পৌর ওলামাদলের সভাপতি মো. কামাল খানের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা ওলামাদলের উপদেষ্টা এনামুল হক, পৌর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আফজাল কবির, সেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক শাহিন মিয়া, কৃষকদলের সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন, যুবদল নেতা মোবারক হোসেন, ওলামাদল নেতা আমির হোসেন, নাছির মোল্লা আলমগীর হোসেন, হাজী মোজাম্মেল হক মোজা, সোহেল মিয়া, জাকির হোসেন, আমজাদ হোসেন এছাক, নবী হোসেন, বিল্লাল হোসেন, অজুফা আক্তার প্রমুখ।

উল্লেখ্য, নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার তারাব পৌরসভা, ভুলতা, গোলাকান্দাইল ও মুড়াপাড়া ইউনিয়নের ১৬ গ্রামের প্রায় লক্ষাধিক বাসিন্দা দীর্ঘদিন ধরে জলাবদ্ধতার সাথে বসবাস করে আসছে।

এদিকে ওলামাদলের কেন্দ্রিয় কমিটির সহসভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ জেলা ওলামাদলের সভাপতি সামছুর রহমান খান বেনু দীর্ঘদিন ধরে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। পরে তাঁর সুস্থ্যতাসহ খালেদা জিয়া, তারেক রহমান এবং রোহিঙ্গা মুসলমানদের জন্য মোনাজাত করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here