নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ এ কে এম শামীম ওসমানের একমাত্র পুত্র অয়ন ওসমানকে প্রসিদ্ধ মাদক ব্যবসায়ী ও খুনী হিসেবে আখ্যায়িত করে তার চরিত্র হনন করায় নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সাধারন সম্পাদক আব্দুর রহমানের বিরুদ্ধে তীব্র সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে।
আব্দুর রহমানকে টানবাজারের একসময়কার পতিতাপল্লীর দালাল হিসেবে আখ্যায়িত করে তাকে নারায়ণগঞ্জে অবাঞ্চিত ঘোষণার দাবীও জানাচ্ছেন মহানগর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীসহ শামীম ওসমানের অনুসারীরা।

মহানগর ছাত্রলীগের আহ্বায়ক ও সরকারী তোলারাম কলেজ ছাত্র-ছাত্রী সংসদের ভিপি মো: হাবিবুর রহমান রিয়াদ ফেসবুকে মন্তব্য করেন, ‘ বাম নাস্তিক আব্দুর রহমানের দুই গালে জুতা মার তালে তালে। তুই অয়ন ওসমানে পায়ের জুতার সমান হতে পারবিনা। তোর পচা মুখে এমন মিথ্যাচারকে থু থু দেয় সাধারন শিক্ষার্থীরা। অয়ন ওসমান নারায়ণগঞ্জের ছাত্রছাত্রীদের আস্থার প্রতীক। তোমাদের মত কুকুর,কুকুরী ও জানোয়াররা ঘেউ ঘেউ করতে থাক। নারায়ণগঞ্জে এসব নরপিশাচদের ষড়যন্ত্র, মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। প্রশাসনের কাছে বলব এসব জানোয়ারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হোক যাতে নারায়ণগঞ্জের শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় থাকে।’

শিক্ষক আরিফ চঞ্চল বলেন, ‘যেই অয়ন ওসমান এর কাছ থেকে কোনো ছাত্র ছাত্রী সমস্যা নিয়ে গেলে খালি হাতে ফেরে না, যিনি নির্যাতিত নারীদের বিনা খরচে আইনি সহায়তা প্রদান করেন, যিনি পথ শিশুদের খোঁজ খবর রাখেন, যিনি বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ান, ডিএনডি জলাবদ্ধতা ২০১৭ খ্রি: সময় একমাত্র যাকে ডিএনডি বাসী কাছে পেয়েছেন এবং ঐ সময় ডিএনডির ৫০০০ পরিবার কে খাদ্য সামগ্রী দিয়েছেন। যিনি নারায়ণগঞ্জ জেলার শিক্ষার মান উন্নয়নে বিভিন্ন পরিকল্পনা করছেন তাকে এই ধরনের বাজে কমেন্টস করার বিরুদ্ধে আমি একজন শিক্ষক এবং নারায়ণগঞ্জ জেলার একটি বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা হিসাবে তীব্র প্রতিবাদ এবং ঘৃণা প্রকাশ করছি।’

এমটিএ মেহেদী আব্দুর রহমানকে পতিতাপল্লীর দালাল আখ্যায়িত করে তাকে নারায়ণগঞ্জে অবাঞ্চিত ঘোষণার দাবী জানান। পাশাাশি আরো অনেকেই আব্দুর রহমানের বিরুদ্ধে আরো বিদ্রুপ মন্তব্য করেন।

তবে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শেখ সাফায়েত আলম সানী অয়ন ওসমানের উদ্বৃত্তি দিয়ে একটি লেখা পোস্ট করেছেন। যেখানে অয়ন ওসমান বলেছেন, ‘আমার বিরুদ্ধে যখন কেউ কোন ধরনের মিথ্যা অপবাদ ছড়ায় এবং আমার পরিবারের ভাবমূর্তি নস্ট করার চেস্টা করে, তখন যারা নাকি আমাদের ভালোবাসে ওনাদের মুখে একটা প্রশ্ন জাগে যে আমি কোন ধরনের পাল্টা জবাব দেইনা কেনো বা প্রতিবাদ করিনা কেনো? এটার কারন একটাই সেটা হচ্ছে আমি অয়ন ওসমান। মানুষের বয়সের সাথে অনেক ধরনের শিক্ষা ও অভিজ্ঞতা হয় এবং আমি গত ১০ বছরে একটা জিনিস শিখতে পেরেছি যে যখন কেউ সমাজে যে কারনেই হোক জনপ্রিয় হয়ে উঠে ওইটাকে নষ্ট করার মুল উদ্দেশ্য হয়ে উঠে কিছু কিছু মানুষের। আমি ১০ বছরে আরো শিখেছি যে ছোটরা বড়দের থেকে শিখে এবং আমি হিং¯্রতা বা যে কোন রাজনৈতিক রেষারেশিতে জরানো পছন্দ করিনা যেটা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের মধ্যে ভুল ধারনা সৃষ্টি করবে। রাজনীতি করা মানে দেশের সেবা করা।আমি চাই নারায়নগঞ্জের তরুন সমাজের মধ্যে এই চেতনাটা আবার গড়ে উঠুক।’

উল্লেখ্য, নারায়ণগঞ্জের মেধাবী ছাত্র তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী হত্যা ও বিচারহীনতার ৫ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে গত ৯ মার্চ বিকেলে শহরের ২ নং রেলগেট এলাকায় সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চ আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্যকালে নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী যখন ত্বকী হত্যাকারীদের বাঁচানোর জন্য সংসদে কথা বলেন তখন তিনি একবারও বলেন না তার পিতৃ হত্যার বিচারের দাবীতে রফিউর রাব্বীর বাবা ডা. এস হোসেন আন্দোলন সংগ্রাম করেছিলেন। অথচ, তার নাতীকেই শামীম ওসমান, অয়ন ওসমান, আজমীর ওসমানরা হত্যা করেছে।’

আব্দুর রহমান অভিযোগ করে বলেন, ‘অয়ন ওসমান ভাগ্যগুণে এবং টাকা পয়সা দিয়ে নিজের নামটা কাটাতে পেরেছেন। কিন্তু যখন ত্বকী হত্যার বিচার হবে তখন এই শামীম ওসমানের কুলাঙ্গার পুত্র অয়ন ওসমান, যিনি ইতিমধ্যেই নিজেকে খুনী এবং মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন, তারও বিচার করা হবে। নারায়ণগঞ্জের সকল শ্রেণী পেশার মানুষ ইতিমধ্যেই জানেন, শামীম ওসমানের এই গুণধর পুত্র অয়ন ওসমান একজন প্রসিদ্ধ মাদক ব্যবসায়ী ও খুনী।’

সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক রফিউর রাব্বীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মুক্তিযোদ্ধের সংগঠক পঙ্কজ ভট্টাচার্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here