নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: বাংলায় একটি প্রবাদ আছে- ‘পুরনো চাল ভাতে বাড়ে’। ঠিক যেন তেমনটাই হয়েছে আগামী সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ জেলাধীন ৩টি আসনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের প্রার্থী চূড়ান্তকরণের ক্ষেত্রে।

তাই তো, আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ জেলার ৩টি সংসদীয় আসনে পুনরায় ‘নৌকার মাঝি’ হচ্ছেন, বর্তমান সংসদ সদস্যরা। বিভিন্ন সরকারী-বেসরকারী সংস্থার জরিপের ভিত্তিতেই আগামী নির্বাচনেও আওয়ামীলীগের চূড়ান্ত মনোনয়ন তালিকায় স্থান পান তারা।

তবে শুধু তাই নয়, চূড়ান্ত তালিকায় থাকা এই তিন জন সাংসদকে ইতিমধ্যেই আওয়ামীলীগের হাইকমান্ড থেকে মনোনয়নের বিষয়টি জানিয়ে দিয়ে নির্বাচনী এলাকায় জণসংযোগ করতেও বলা হয়েছে।

যেই কারনে, আরো কাছাকাছি থেকে জনগণের সুখ-দু:খের কথা জানতে নির্বাচনী এলাকা সিদ্ধিরগঞ্জে সম্প্রতি একটি কার্যালয় খুলেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ আলহাজ¦ একেএম শামীম ওসমান। আর ফতুল্লায়ও শীঘ্রই আরেক কার্যালয় খোলা হবে বলে বিশ^স্ত সূত্রে জানাযায়।

শুক্রবার জাতীয় দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদে জানাগেছে, আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আরো প্রায় বছর খানেক বাকী থাকলেও ইতিমধ্যেই ১৫১ টি আসনে দলীয় মনোনয়ন চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ। সরকারী-বেসরকারী একাধিক সংস্থার জরিপের ভিত্তিতেই যাচাই-বাছাই শেষে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বোর্ড ও দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার সম্মতিক্রমেই প্রার্থী তালিকাটি চূড়ান্ত করা হয়েছে।

আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বোর্ডের একাধিক সদস্যের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আগামী নির্বাচনে প্রার্থী চূড়ান্তকরনের লক্ষ্যে আসন ভিত্তিক একাধিক জরিপ করা হয়। সরকারের বিভিন্ন সংস্থা, জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ প্রশাসন, বেসরকারী গবেষণা সংস্থা, দলীয় বিভিন্ন শাখার মাধ্যমে জরিপগুলো চালানো হয়েছে। সব জরিপের ফল একসঙ্গে বিশ্লেষণ করে এই প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে।

যেখানে নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য আলহাজ¦ এ কে এম শামীম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) আসনে আলহাজ¦ নজরুল ইসলাম বাবু ও নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনে গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতিক কে পুনরায় আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনীত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য ও সভাপতি মন্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ জানান, ‘বিভিন্ন জরিপের ভিত্তিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বাছাইয়ের কাজ চলছে। ইতোমধ্যে বেশকিছু আসনে প্রার্থী বাছাই সম্পন্ন হয়েছে। চূড়ান্ত প্রার্থীদের অনেককেই চুপচাপ জানানো হচ্ছে, এলাকায় গিয়ে কাজ করার জন্য নির্দেশ দেয়া হচ্ছে।’

উল্লেখ্য, নারায়ণগঞ্জ জেলাধীন এই ৩টি সংসদীয় আসনে আগামী নির্বাচনে এমপি গোলাম দস্তগীর গাজী ও আলহাজ¦ নজরুল ইসলাম বাবু একটানা এবং শামীম ওসমান তৃতীয় বারের মত আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পাচ্ছেন।

আর প্রত্যাশী হিসেবে জনসংযোগসহ জোর লবিং চালিয়েছেন, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে জাতীয় শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রম কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ¦ কাউসার আহম্মেদ পলাশ, নারায়ণগঞ্জ-২ আসনে কেন্দ্রীয় যুবলীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিষ্টার ইকবাল পারভেজ, নারায়ণগঞ্জ-১ আসনে মুক্তিযোদ্ধা সেক্টর কমান্ডার ফোরামের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাবেক এমপি মেজর জেনারেল (অব.) কেএম শফিউল্লাহ বীর উত্তম, রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো: শাহজাহান ভূঁইয়া, বসুন্ধরা গ্রুপের পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর ও কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শিল্পপতি রফিকুল ইসলাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here