নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ সেলিম ওসমান বলেছেন, ‘বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় দেখতে পাচ্ছি শহরের ভেতর থেকে বাস ষ্ট্যান্ড সরানোর বিষয়ে লেখালেখি হচ্ছে। অনেকেই নাকি বাস ষ্ট্যান্ড সরানোর কথা বলছে। কিন্তু করলেও দোষ না করলেও দোষ।’
রবিবার (৬ আগষ্ট) সকাল ১০ টায় নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে শহরের যানজট নিরসনের লক্ষে নিতাইগঞ্জের বিভিন্ন ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ, বাংলাদেশ ইয়ান মার্চেন্টস এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ ফার্টিলাইজার এসোসিয়েশর, সড়ক পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতৃবৃন্দ, সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সরকারী দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ এবং বিভিন্ন শ্রেনীপেশার নেতৃবৃন্দের সাথে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

সেলিম ওসমান বলেন, ‘নিতাইগঞ্জের ট্রাক স্ট্যান্ড সরানো হয়েছে। এখন বাসস্ট্যান্ড সরানো হলে একই পত্রিকায় লিখবে বন্দরের জনগণকে নদী পারি দিয়ে নারায়ণগঞ্জে বাসস্ট্যান্ডে আসতে বেশী ভাড়া গুনতে হচ্ছে। আসলে যত দোষ নন্দ ঘোষ।’

তিনি ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, ‘আমি আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত টাইম নিয়েছি। জিমখানার পাশে রেলওয়ের জমিতে স্থায়ীভাবে ট্রাক ষ্ট্যান্ড করা হবে। আগামী এই দুই মাস নিতাইগঞ্জ এলাকায় ৪০ জন আনসার সদস্যরা কাজ করবে। তাদের খরচের ব্যায়ভার আমি ব্যবস্থা করেছি। আমি আবারও বলছি প্রতিটি গাড়িকে টোকেন দিয়ে বলবেন রাত ১০ টার পর যেন তারা গাড়ি নিয়ে লোড-আনলোড করে। এর আগে আসলে পঞ্চবটিতে যেন তারা অবস্থান করেন। শহরের খাঁনপুর এলাকায় ও মেট্রো সিনেমা হল সহ যে কোন জায়গায় দিনের বেলায় কোন লোড-আনলোডের গাড়ি যেন পার্কিং করা না হয়।’

সেলিম ওসমান বলেন, ‘শহরের নিতাইগঞ্জ এলাকার রাস্তা এখন একেবারেই ফাঁকা। সাধারন পথচারীরা দিনের বেলায় নির্বিঘেœ যাতায়াত করতে পারছে এই রাস্তা দিয়ে।’

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে তিনি এ সময় আরো বলেন, ‘নিতাইগঞ্জে নির্ধারিত সময়ে সকল প্রকার লোড-আনলোড এর বিষয়ে পূর্বে মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশনা জারি করা ছিল। লোড-আনলোড এর বিষয়ে আপনাদের সহযোগিতা ছাড়া সিদ্ধান্ত হত না। আপনারা যথেষ্ট সহযোগিতা আমাদেরকে করেছেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি সকল ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে ডিসি, এসপি সহ প্রশাসনের সকল কর্মকর্তাদের বলছি এখন থেকে যদি এই আইন কেউ অমান্য করে তাহলে কোন প্রকার বিপদে আপদে পড়লে তার পাশে কেউ থাকবে না। আমি চাই নারায়ণগঞ্জ আবারো পুণরায় প্রাচ্যের ডান্ডি খ্যাতি লাভ করুক।’

সভাপতির বক্তেব্যে জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া বলেন, ‘এই আইন কেউ অমান্য করলে তাকে সরাসরি আমরা জেলখানায় পাঠাবো। আপনারা জঙ্গীবাদের বিষয়ে সর্বদা সতর্ক থাকবেন। মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার হবেন। নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে ভেতরে মিনি গার্মেন্টস এর তৈরীর কাজ আশাকরি আগামী ২ মাসের মধ্যেই সম্পূর্ন হয়ে যাবে। এটি হবে একটি মাইল ফলক।’

জেলা প্রশাসক আরো জানান, সেলিম ওসমান এমপির ওইজডম এ্যাটায়ার্স এর পক্ষ থেকে ৪০ জন আনসার সদস্যের দুই মাসের ভেতন ভাতা হিসেবে ১৫ লক্ষ ৯৮ হাজার ২শত টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। পরে বাংলাদেশ আনসারের নারায়ণগঞ্জ জেলা কমান্ড্যান্ট মোঃ সিরাজুর রহমান ভূইয়ার হাতে একটি চেক প্রদান করেন সেলিম ওসমান।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা পুলিশ সুপার মঈনুল হক, র‌্যাব-১১ এর অধিনায়ক লে. কর্ণেল কামরুল হাসান, নাসিক ১৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শফিউদ্দিন প্রধান, আলীরটেক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মতিউর রহমান মতি, নারায়ণগঞ্জ সুগার এন্ড অয়েল মার্চেন্টস্ এসোসিয়েশন সভাপতি শংকর সাহা, নারায়ণগঞ্জ আটা ময়দা মিল মালিক সমিতির সভাপতি আলহাজ¦ জসীম উদ্দিন মৃধা, মহানগর শ্রমিকলীগের সাধারন সম্পাদক কামরুল হাসান মুন্না, জেলা ট্রাক, ট্যাংকলরী ও কাভার্ডভ্যান মালিক সমিতির সভাপতি মতিউল্লা মিন্টু, জেলা ট্রাক,ট্যাংকলরী ও কাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মাসুসুদর রহমান মানিক, লিয়াকত হোসেন, মোহাম্মদ আলী সহ প্রমূখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here