নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: জাতীয় পুরুস্কারপ্রাপ্ত তরুণ নাট্যকার সরকারী তোলারাম কলেজের মেধাবী শিক্ষার্থী ও সকলের প্রিয়মুখ দিদারুল ইসলাম চঞ্চল, তানভীর মোহাম্মদ ত্বকী হত্যাকান্ড সহ সকল হত্যাকান্ডের বিচার দাবি করেছে চঞ্চল স্মৃতি পরিষদ ও দেওভোগ এলাকাবাসীী।
বুধবার (১৯ জুলাই) সকাল ১১ টায় নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাব মিলনায়তনের সামনে চঞ্চল স্মৃতি পরিষদ ও দেওভোগ এলাকাবাসীর আয়োজনে দিদারুল ইসলাম চঞ্চলের ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে তার হত্যাকারীদের বিচারের দাবীতে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে নিহত দিদারুল ইসলাম চঞ্চলের বড় ভাই জোবায়েদ ইসলাম পমেল তার ভাই হারানোর বেদনা নিয়ে বলেন, ‘আজ বলার কিছুই নাই। তবুও বলতে চাই আজ ৫টি বছর পেরিয়ে গেল চঞ্চল আমাদের মাঝে নেই। এই হত্যাকান্ডের বিচার আমরা এখনও পাইনি। আমি আশা করব আর যেন কোন চঞ্চলের লাশ ওই শীতলক্ষ্যা নদীতে না ভাসে। আর যেন কোন ভাই ভাইকে না হারায়। আমার বাবা-মা’র দোয়া যেন বিফলে যাবেনা। আপনারা আমাদের পরিবারের জন্য দোয়া করবেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘যে পর্যন্ত চঞ্চল হত্যার বিচার এই নারায়ণগঞ্জে না হয় ততদিনই আমরা এই নির্মম হত্যাকান্ডের বিচার চাইব। মেধাবী ছাত্র তানভীর মোহাম্মদ ত্বকী সহ মেধাবী ছাত্রদের নারায়ণগঞ্জের মাটিতে হত্যা করা হচ্ছে। প্রশাসন কে বলতে চাই খুনিদের পাশে আপনারা দাঁড়াবেন না। যারা খুনীদের মদদ দিবেন একদিন আল্লাহ্ তাদের বিচার করবেন। আমরা সন্ত্রাসী নই, আমরা গুন্ডা নই। চঞ্চল অনেক মেধাবী ছিল। আমি সকলের প্রতি অনুরোধ করব যে যেখান থেকে পারুক চঞ্চল হত্যার বিচার যেন তারা সর্বদা দাবি করেন।’

এ সময় অন্যান্য বক্তারা বলেন, ‘যারা ত্বকীকে হত্যা করেছে তারাই চঞ্চলকে হত্যা করেছে। আপনারা জানেন কিছুদিন আগে কবি আরিফ বুলবুল ভাইয়ের উপর হামলা চালানো হয়েছিল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের ভেতরে। যারা খুন করে এবং হামলা চালায় আমরা তাদের বিচার চাই। নারায়ণগঞ্জের সকল হত্যাকান্ডের বিচার করতে হবে। মনে রাখবেন ত্বকী, চঞ্চল ও কবি আরিফ বুলবুল নারায়ণগঞ্জের নাম। ৫ বছর ধরে কেন এই হত্যাকান্ডের বিচার আমরা পাচ্ছি না। চঞ্চলের অপরাধ সে নাট্যশিল্পী ছিল। তার নাটকের বিষয় ছিল নদী দূষন, পরিবেশ দূষন। যারা সংস্কৃতির শত্রু, যারা সুন্দরবন রক্ষার বিপক্ষের শত্রু তারাই চঞ্চলকে হত্যা করেছে।’

মানববন্ধনে এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সাধারন সম্পাদক আব্দুর রহমান,নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সাধারন সম্পাদক ধীমান সাহা জুয়েল, গণসংহতির জেলার সমন্বয়ক তরিকুল সুজন, চঞ্চল স্মৃতি পরিষদ এর সাধারন সম্পাদক ওসমান গনি আরমান, নাট্যকার জাহিদ হৃদয় সহ প্রমূখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here