নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, ফতুল্লা প্রতিনিধি: ফতুল্লার আলীগঞ্জ এলাকায় পাষন্ড বাবা চাচা ফুফু কর্র্র্তৃক ছেলে ও স্ত্রীকে গলায় গামছা পেঁচিয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে শনিবার রাতে মামলা করেছে হাজেরা বেগম (৪০)। এম মামলার অভিযোগে জানাযায়, ফতুল্লার আলীগঞ্জ এলাকার আবুল আলীর ছেলে আঃ রশিদ (৪৫)। সে হাজেরা বেগমকে ইসলামের শরীয়ত মোতাবেক বিবাহ করেছে। তার ঘরে রফিকুলইসলাম নামের এক ছেলে আছে। সে লিজাকে বিবাহ করেছে। মা বাবা স্ত্রী নিয়ে রফিক বসবাস করে। বাবা আ.রশিদ কারনে অকারনে তার মা হাজেরা কে এলোপাথারী মারধর করে। আ. রফিকের দাবী তার মায়ের বাবার বাড়ি থেকে যৌতুকের টাকা আনতে ভীষন চাপ সৃষ্টি করে তার বাবা আ. রশিদ। এতে হাজেরা বেগম রাজি না হওয়ায় আ. রশিদ তাকে প্রায়ই মারধর করে।

গত ১৭ অক্টোবর দুপুর ১২টায় আ, রশিদ তার ভাই আবুল হোসেন(৩৫),আওয়াল হোসেন (৩২)হামিদ হোসেন (৫০) সহ আরো ৪/৫ মিলে হাজেরা কে মারধর করে রক্তাক্ত জখম করেছে। পরে তাকে তার ছেলে রফিক ও ছেলের স্ত্রী লিজা খানপুর হাসপাতালে চিকিৎসা করে বাড়ি নিয়ে আসে। আবার ১৯ অক্টোবর রাতে হাজেরাকে দ্বিতীয় দফায় মারধর ধর করে। এসময় তার ছেলে রফিক মাকে ছাড়াতে গেলে রফিক ওতার স্ত্রীকে মারধর করে বাবা রশিদ ও চাচারা । পাষান্ড বাবা ও চাচা রফিককে পিটিয়ে গলায় গামছা দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে হত্যার চেষ্টা করে।এঘনায় চিকিৎসা শেষে থানায় এসে মামলা দায়ের করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here