নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: সংরক্ষিত আসনের নারী সাংসদ এড. হোসনে আরা বাবলী বলেন, ‘জেল হত্যার মধ্য দিয়ে ষড়যন্ত্রকারীরা বঙ্গবন্ধু ও এ দেশের স্বাধীনতার ইতিহাস নিশ্চিহ্ন করে দিতে চেয়েছিল। কিন্তু তারা তাদের উদ্দেশ্যে সফল হতে পারেনি। ৭১ এর পরাজিত শক্তিরা এখনো থেমে নেই। ঘরে বাইরে এখনো ষড়যন্ত্র চলছে। ষড়যন্ত্রকারীরা শেখ হাসিনাকে হত্যা করে দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে এখনো তৎপর। তাই সবাইকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। তৃতীয় কোন শক্তি যাতে আমাদের ঐক্য বিনষ্ট না করতে পারে, সেদিকে সবাইকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।’

শুক্রবার (৩ নভেম্বর) বিকাল ৪ টায় শহরের ২নং রেলগেটস্থ দলীয় কার্যালয়ে জেল হত্যা দিবস ও মনির ভাই স্মরনে নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগ কর্তৃক আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।


জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই বলেন, বঙ্গবন্ধু নির্বাচনে জয়লাভ করে কিন্তু তাকে ক্ষমতায় আসতে নেননি । পরে তিনি সাত মার্চ সমগ্র বাঙ্গালী জাতি কে একত্রিত করে ভাষন দেযয়। দেশের জন্য সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ার আহ্বান জানান । বঙ্গবন্ধুর ডাকে দীর্ঘ নয় মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে আমরা স্বাধীনতা অর্জন করি । আজ জাতিসংঘ বঙ্গবন্ধুর সেই ভাষণ কে বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ভাষণ হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ায় আমরা ধন্যবাদ জানাই । বঙ্গবন্ধুর নামের উপরে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল আর তার নেতৃত্বে দিয়েছিল জাতীয় এই চার নেতা । স্বাধীনতা বিরোধী শক্তিরা ১৯৭৫ সালের পনের আগষ্ট বঙ্গবন্ধু কে সহ পরিবারে হত্যা পর জেল হাজতে জাতীয় চার নেতা কে গুলি করে হত্যা করে । বিদেশ থাকায় প্রাণে বেঁচে যান।

শ্রমিকলীগ নেতা আলহাজ¦ কাউসার আহম্মেদ পলাশ বলেন, আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব শূণ্য করতেই ৩ নভেম্বরের ওই হত্যাযজ্ঞ চালানো হয়। আমাদের এই নৃশংস ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিতে হবে। আগামীতে আওয়ামী লীগ ও শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে যাতে কোন অপশক্তি মাথা চড়া দিয়ে দাঁড়াতে না পারে, সে লক্ষ্যে সকল ভেদাভেদ ভুলে আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ষড়যন্ত্রকারীদের দাঁতভাঙা জবাব দিতে হবে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই’র সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ সংরক্ষিত মহিলা এমপি এড. হোসনে আরা বেগম, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আরজু রহমান ভূঁইয়া, জেলা যুবলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদির, জেলা পরিষদের সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, মোঃ আলাউদ্দিন, শ্রমিকলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রমিক উন্নয়ন ও কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক কাউসার আহমেদ পলাশ, আওয়ামীলীগ নেতা এড. সুলতান উদ্দিন নান্নু, সদর থানা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ জসিম উদ্দিন, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, জেলা ইউনাইটেড ফেডারেশন অফ গার্মেন্টস ওয়ার্কাস সভাপতি শাহাদাত হোসেন সেন্টু, জেলা ৭১ চেতনা মঞ্চের সভাপতি এম এ রাসেল, জেলা ব্যাংক ফেডারেশনের সভাপতি আব্দুল কাদির, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও নাসিক কাউন্সিলর মনোয়ারা বেগম, আওয়ামী লীগ নেতা, আনোয়ার হোসেন, মোঃ আক্তারুজ্জামান সহ প্রমুখ।

এ সময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জাতীয় চার নেতা এবং ৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে নিহত শহীদদের আত্মার মাগফেরাত ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনায় মোনাজাত পরিচালনা করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here