নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: চলতি মাসের শেষের দিকে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী নাসিকবাসীর জন্য বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নে ২০১৭-২০১৮ অর্থ বছরে ৬৬৩ কোটি টাকার যে বাজেট ঘোষনা করতে যাচ্ছেন সেই বাজেটের মধ্যে নগরীর ২নং রেল গেইট থেকে চাষাড়া পর্যন্ত বিকল্প রাস্তার প্রকল্পটি সম্পূর্ন করা সহ উকিলপাড়া থেকে গলাচিপা মোড় পর্যন্ত রেল লাইনের পশ্চিম পার্শ্বের মতো পূর্ব পার্শ্বেও রাস্তা ও পানি নিঃষ্কাশনের জন্য ড্রেন করে দেয়ার জোড়ালো দাবী জানিয়েছেন ওই এলাকার বাসিন্দারা।

কারন হিসেবে তারা এ প্রতিনিধিকে বলেন, আমাদের সম্মানিত মেয়র মহোদয় পশ্চিম পার্শ্বে রাস্তা ও ড্রেন করে দিয়েছেন ঠিকই, কিন্তু এর সুফল শুধুমাত্র পশ্চিম পারের বাসিন্দারাই পাচ্ছে। কিন্তু আমদের পূর্ব পারের বাসিন্দাদের পানি নিঃষ্কাশনের জন্য ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় একটু বৃষ্টি হলেই বাসাবাড়িতে পানি জমে যায়। তাছাড়া রেল লাইনটির পূর্ব পাশে রাস্তা না থাকায় সেখানকার থান কাপড় ব্যাবসায়ী ও লেবারদের অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে হয়। যে কোন সময় সেখানে দুর্ঘটনা ঘটার আশংকা রয়েছে। আমরা রেল লাইনের পূর্ব পাশের জনগন মেয়রের কাছে আকুল আবেদন জানাচ্ছি যে, তিনি যেন অবিলম্বে রেললাইনের পশ্চিম পাশের মতো পূর্ব পাশেও প্রায় ২০ ফুটের রাস্তা ও ড্রেন করে দেন।

তাছাড়া, সাম্প্রতিক সময়ে নারায়ণগঞ্জে যানজট বৃদ্ধি পেয়েছে চরমভাবে। একদিকে চাষাড়া মোড় পার হতে যানজটের কারনে দীর্ঘ সময় লেগে যাচ্ছে, অন্যদিকে আগে দুই নং রেলগেট পর্যন্ত যানজট বেশি থাকলেও এখন তা বিস্তৃত হয়েছে নিতাইগঞ্জ পর্যন্ত। রিক্সা চলাচলের জন্য যদি ২নং রেল গেট থেকে গলাচিপা রেলগেট পর্যন্ত রেল লাইনের পশ্চিম পার্শ্বের মতো পূর্ব পার্শ্বেও রাস্তা করে দেওয়া হয় তাহলে নগরীর যানজট অনেকাংশেই কমে যাবে। রেললাইনের উভয় পার্শে¦ রাস্তা থাকলে ওয়ান ওয়ে হিসেবে রিক্সা চলাচল করতে পারতো। এতে নগরবাসীর দুর্ভোগ অনেকাংশেই কমতো।

তাই রেল লাইনের পূর্ব পাশের বাসিন্দা সহ নগরবাসীর দাবী দুই নং রেলগেইট থেকে চাষাড়া পর্যন্ত যানজট নিরসনের জন্য বিকল্প রাস্তার প্রকল্পটি চলতি বাজেটেই শেষ করা হোক। এতে নগরবাসীর যানজটের দুর্ভোগ কিছুটা হলেও কমবে। পাশাপাশি রেল লাইনের পূর্ব পাশের জনগন রেহাই পাবে জলাবদ্ধতা থেকে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here