নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের ফতুল্লাস্থ খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামের পাশে যখন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ময়লা ফেলা হতো তখন এনিয়ে রাজনীতিও কম হয়নি।
সিটি মেয়র ডা: সেলিনা হায়াত আইভীর বিরুদ্ধে একপর্যায়ে মানববন্ধনসহ ময়লা ফেলতে যাওয়া পরিচ্ছন্ন কর্মীদের উপড়ও বাঁধার সৃষ্টি করেছিল ফতুল্লাবাসী। তখন এই ময়লা ফেলার কারনে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমানের তোপের মুখেও পড়তে হয়েছিল মেয়র আইভীকে।

এরপর স্থানীয় জনসাধারনের দাবীর প্রেক্ষিতে সেখানে সিটি কর্পোরেশন ময়লা ফেলা বন্ধ করে দিলে সেই ময়লার বাগাড়ে ফুলের বাগান বানিয়ে চমক সৃষ্টি করেন শামীম ওসমান। তারপর সদর উপজেলার মালিকানাধীন এই জায়গাতে সাংসদ শামীম ওসমানের হস্তক্ষেপে মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহ নিজামের তত্ত্বাবধানে নির্মিত হয় নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের প্রয়াত সাংসদ আলহাজ¦ নাসিম ওসমানের নামে মেমোরিয়াল পার্ক।

কিন্তু ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের জালকুড়ি এলাকায় এখন সড়কের দু’ধারে ফের ময়লার ডাম্পিং স্পট তৈরী করছে ফতুল্লা ও কুতুবপুর ইউনিয়ন। শুধু এই দু’ ইউনিয়ন নয়, এখানে চাষাড়া থেকেও গাড়ীতে এনে ময়লা ফেলা হয় বলে নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে জানান, পরিচ্ছন্ন কর্মীরা।

প্রতিনিয়ত এখানে ময়লা ফেলে পুনরায় পরিবেশ দূষিত করা হলেও নীরব রয়েছেন সাংসদ শামীম ওসমান বলে মন্তব্য করেন প্রতিদিন ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে চলাচলরত একাধিক যাত্রী।

তাদের মতে, আগে ফতুল্লা স্টেডিয়ামের পাশে ময়লা ফেলার কারনে দূর্গন্ধে মানুষের চলাচলে ভোগান্তি পোহাতে হতো। এখন আবার নতুন করে জালকুড়িতে প্রধান সড়কের পাশে ফতুল্লা ও কুতুবপুর ইউনিয়নের ময়লা গুলো ফেলার কারনে দূর্গন্ধে বাসে যাতায়াত কালে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। উক্ত স্থান দিয়ে চলাচলের সময় নাকে হাত দিয়ে দূর্গন্ধ থেকে পরিত্রানের চেষ্টা করা হলেও বাতাসের কারনে দূর্গন্ধ অনেক দূর পর্যন্ত নাকে আসছে।

বেশ কয়েকজন সচেতন নাগরিক বলেন, ‘শিল্পাঞ্চল খ্যাত নারায়ণগঞ্জে প্রতিদিনই অনেক বিদেশী বায়ার আসছেন। এমনকি কয়েকদিন পরে ফতুল্লা খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া প্রস্তুতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু রাস্তার দু’ধারে এই ময়লা ফেলার কারনে বিদেশীদের কাছে নারায়ণগঞ্জের পরিবেশ এখন প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

তাই এব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান নীরব না থেকে শীঘ্রই এখানে ময়লা ফেলা বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিবেন বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন সচেতন মহল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here