নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিভিন্ন থাকা দলের বিদ্রোহী প্রার্থীরা মঙ্গলবারের মধ্যে সরে না দাঁড়ালে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে শেষবারের মত হুঁশিয়ারী উচ্চারন করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
সোমবার (১৭ ডিসেম্বর) সকালে নারায়ণগঞ্জের কাঁচপুরে দ্বিতীয় কাঁচপুর ও মেঘনায় দ্বিতীয় মেঘনা চার লেনের নতুন সেতুর কাজ পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এই হুঁশিয়ারী উচ্চারন করেন।

এসময় তার সঙ্গে ছিলেন রেলমন্ত্রী মজিবুল হক, সড়ক ও জনপথ বিভাগের ঢাকা জোনের প্রধান প্রকৌশলী আব্দুস সবুর, নারায়ণগঞ্জ সওজের প্রধান প্রকৌশলী আলিয়ার হোসেন প্রমুখ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা সোমবার পর্যন্ত অপেক্ষা করবো। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা মঙ্গলবার (১৮ ডিসেম্বর) মধ্যে সরে না দাঁড়ালে দলের বর্ধিত সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, এখন তো আর প্রত্যাহারের সুযোগ নেই, তবে প্রেস কনফারেন্স করে দলীয় প্রার্থীকে সমর্থন দিতে হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে কাদের আরও বলেন, অনেক স্থানে আমরা কৌশলগত কারণে নৌকা-লাঙ্গলের প্রার্থী দিয়েছি, আমাদের নেত্রী তা গ্রহণ করেছেন। এতে ভোটের মাঠে আমাদের কোনো সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা নেই। এছাড়া সব স্থানে আমরা আলাপ-আলোচনার ভিত্তিতেই মহাজোটের প্রার্থী দিয়েছি।

তিনি জানান, কাঁচপুর সেতুর কাজ বিজয়ের মাসেই শেষ হয়ে যাবে আর মেঘনা-গোমতী সেতুর ফোর লেনের কাজ মে-জুন লাগাদ শেষ হয়ে যাবে। কাঁচপুরের সেতু নির্বাচনের আগেই সবার জন্য খুলে দেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনে জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব আলহাজ¦ লিয়াকত হোসেন খোকাকে মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেয়ার পরেও দলের বিদ্রোহী হিসেবে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে এখনো নির্বাচনের মাঠে রয়েছেন জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও সাবেক এমপি আবদুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত।

এরপর, গত ১৬ ডিসেম্বর সোনারগাঁয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত বিজয় দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যকালে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের আওয়ামীলীগের প্রার্থী শামীম ওসমান ১৮ ডিসেম্বরের মধ্যে কায়সার হাসনাতকে মহাজোটের প্রার্থীর পক্ষে নামার আহ্বান জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here