নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: একাত্তর সালের ২৫ মার্চ কালরাত স্মরণে এক মিনিট ‘ব্ল্যাকআউট’ থাকবে নারায়ণগঞ্জ।
সরকারী সিদ্ধান্ত মোতাবেক রবিবার সারাদেশের ন্যায় এক মিনিটের জন্য এই ‘ব্ল্যাকআউট’ (অন্ধকার) কর্মসূচি পালন করবে নারায়ণগঞ্জবাসী। আর এই কর্মসূচি পালনে জণগনকে উদ্ভুদ্ধ করতে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে প্রচারনা চালিয়েছে জেলা প্রশাসন।

কারন, এক মিনিটের জন্য কেন্দ্রীয় ভাবে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন থাকবেনা, বরং নিজ উদ্যোগে এই কর্মসূচি পালনের আহ্বান জানানো হয়েছে। তাই ৭১’র ভয়াল ২৫ মার্চ কালরাত্রিতে নিহত শহীদদের স্মরণে ‘ব্ল্যাকআউট’ কর্মসূচি পালনে সাধারন জণগনকে আহ্বান জানিয়ে বিভিন্ন স্থানে প্রচারনা চালানো হয়েছে বলে নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে জানান, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের ডেপুটি নেজারত কালেক্টর (্এনডিসি) জ্যোতি চন্দ্র বিকাশ।

তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর গণহত্যার স্মরণে ২৫ মার্চ সরকারী সিদ্ধান্ত মোতাবেক নারায়ণগঞ্জ জেলায়ও ‘ব্ল্যাকআউট’ কর্মসূচি পালন করা হবে। এদিন শহীদদের স্মরণে সারাদেশের ন্যায় নারায়ণগঞ্জেও রাত ৯টা থেকে ৯ টা ১ মিনিট পর্যন্ত এক মিনিট সব ধরনের বাতি বন্ধ রাখা হবে।’

আর নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নারায়ণগঞ্জবাসীকে স্বত:স্ফূর্ত ভাবে এই কর্মসূচি পালনের আহ্বান জানিয়েছেন এনডিসি।

এরআগে, ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস ও ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে গত ১১ মার্চ সচিবালয়ে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক এক সমন্বয় সভা শেষে সরকারের ‘ব্ল্যাকআউট’ কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্তের কথা জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

মন্ত্রী বলেন, ‘২৫ মার্চ বাঙালি জাতির জীবনের এক বেদনাময় দিন। ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী নিরস্ত্র বাঙালি জাতির ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। ‘অপারেশন সার্চলাইট’ নামের সেই অভিযানে কালরাতের প্রথম প্রহরে ঢাকায় নির্বিচারে গণহত্যা চালানো হয়। এ দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতেই ‘ব্ল্যাকআউট’ কর্মসূচি পালন করা হবে।’

তবে তিনি এও জানিয়েছিলেন, ‘কেন্দ্রীয়ভাবে বৈদ্যুতিক সংযোগ বন্ধ না করে সকলকে নিজ নিজ উদ্যোগে বাতি নিভিয়ে এক মিনিট এই প্রতীকি কর্মসূচিতে যোগ দিতে হবে। তবে হাসপাতালসহ জরুরী সেবামূলক প্রতিষ্ঠানগুলো এ কর্মসূচির বাইরে থাকবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here