নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি’র সভাপতি এড. আবুল কালামের পিছুটানের কারনে ক্রমেই বেকায়দায় পরছে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি- এমনটাই মনে করছে দলটির তৃণমূল নেতাকর্মীরা। আবুল কালামের ভাই মহানগরের সহ সভাপতি মুকুলের সরকারী দলের সাথে আতাঁত, ছেলে মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক আবুল কাউসার আশার হঠাৎ নিস্ক্রিয়তা, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু আল ইউসুফ খান টিপুর উছৃঙ্খলতা আর সর্বশেষ মহানগর বিএনপি’র একমাত্র পরীক্ষিত নেতা সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামালের দেশত্যাগে রীতিমত কোনঠাসা অবস্থায় উপনীত হয়েছেন সদাই আন্দোলন বিমুখ আবুল কালাম। আর কলামের এই পিছুটানের চরম মূল্য দিতে হচ্ছে মহানগর বিএনপিকে।

সূত্রে প্রকাশ, নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি’র সভাপতি এড. আবুল কালামের সবচেয়ে বড় পিছুটান হলো তার ভাই নারায়ণগঞ্জ বিএনপি’র বিতর্কিত নেতা আতাউর রহমান মুকুল। দলীয় চেয়ারপার্সণের বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাষ্ট মামলায় সাজার রায় নির্ধারনের দিন থেকে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম করতে গিয়ে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি’র প্রায় শতাধীক নেতাকর্মী গ্রেফতার হয় ও প্রায় সহ¯্রাধীক নেতাকর্মী মামলা হামলার শিকার হন। কিন্তু এই প্রায় দুই মাসে কোথাও দেখা মিলেনি মুকুলের। এমনকি অশি^াস্য হলেও সত্যি তার বিরুদ্ধে কোন মামলা পর্যন্ত হয়নি। মুকুলের একের পর এক বিতর্কিত কর্মকান্ডের কারনে এখন কোনঠাসা অবস্থায় রয়েছে মহানগর বিএনপি’র কর্ণধার এড. আবুল কালাম। দলের ত্যাগী নেতাদের বাদ দিয়ে মুকুলের মতো সুযোগসন্ধানী নেতাকে কমিটিতে স্থান দেওয়ার ফল ভোগ করতে হচ্ছে বলে মনে করে তৃণমূল।

অপরদিকে এড. আবুল কালাম পুত্র নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক আবুল কাউসার আশা এক সময় রাজপথে সক্রিয় ছিলেন আন্দোলন সংগ্রামে। কিন্তু হঠাৎই পিতার মতো তিনিও গৃহবন্দি হয়ে পরেন। দলীয় চেয়ারপার্সণের বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাষ্ট মামলায় পাঁচ বছরের সাজা হওয়ার প্রতিবাদে এবং নেত্রীর মুক্তির দাবীতে আশার নেতৃত্বে জোড়ালো কোন অবস্থান কারো চোখে পরেনি।

এছাড়া নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক আবু আল ইউসুফ খান টিপুর একের পর এক বিতর্কিত কর্মকান্ড এড. আবুল কালামের আরেক পিছুটান হিসেবে দেখা দিয়েছে। টিপুর এই উছৃঙ্খলার জন্য সবাই আবুল কালামকেই দোষারোপ করছে। আর সর্বশেষ রানিং মেটের এসব পিছুটানের বালাই সহ্য করতে না পেরে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি’র সবচেয়ে সংগ্রামী মুখ সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল দেশ ছেড়ে বিদেশ পাড়ি জমাতে বাধ্য হয়েছেন। তাই তৃণমূল নেতাকর্মীরা মনে করেন, এড. আবুল কালামের এসব পিছুটানের কারনে ক্রমেই বেকায়দায় পরতে যাচ্ছে মহানগর বিএনপি। এবং অচিরেই এর চরম মাশুল গুনতে হবে পুরো সংগঠনকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here