নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল¬ার কাশিপুর ইউনিয়নের পশ্চিম দেওভোগ বাংলাবাজার (সরদার) বাড়ির পশ্চিম পাশের এলাকায় রাতের বেলায় আবাসিক বাসা বাড়িতে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।
স্থানীয় এলাকার প্রভাবশালী কতিপয় ব্যাক্তি এবং স্থানীয় এলাকার ফারুক ওরফে গ্যাস ফারুক এই অবৈধ গ্যাস সংযোগের মূল হোতা। অভিযোগ রয়েছে গ্যাস ফারুক নিজেকে তিতাস গ্যাসের একজন ঠিকারদার হিসেবে পরিচয় দিয়ে থাকেন। স্থানীয় এলাকার কয়েকটি বাড়ি থেকে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে গভীর রাতের বেলায় দেওয়া হয় এই অবৈধ গ্যাস সংযোগ!

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় একাধিক এলাকাবাসী জানান, গ্যাস ফারুক এলাকার কতিপয় প্রভাবশালী ব্যাক্তিদেরকে ম্যানেজ করে গভীর রাতে অবৈধ এই গ্যাসের সংযোগ দিয়ে থাকেন। সংযোগ প্রতি দুই লক্ষ টাকা করে নিয়ে থাকেন গ্যাস ফারুক! বিগত তিন সপ্তাহ পূর্ব ১০টি বাড়িতে গ্যাসের এ ধরনের অবৈধ সংযোগ দিলে তিতাত গ্যাস কর্তৃপক্ষ এর কয়েকদিন পরে এসে অবৈধ সংযোগ হওয়া রাইজার গুলো এসে খুলে নিয়ে যায়।

তারা আরো জানান, পশ্চিম দেওভোগ বাঁশমুলি দোকানের দক্ষিন পূর্ব পাশের সংলগ্ন এলাকার গ্যাস ফারুকের রয়েছে চারতলা বিশিষ্ট একটি বিলাস বহুল বাড়ি। এ ছাড়া কয়েকটি জমির মালিকও বনে যায় সে রাতারাতি।

গ্যাস ফারুকের এহেন কর্মকান্ডে এলাকাবাসী তাদের ক্ষোভ প্রকাশ বলেন, এমনিতেই বৈধ সংযোগ নিয়ে দিনের বেলায় স্বল্প গ্যাসে আমাদের রান্না-বান্না করতে কষ্ট হয় তার উপর গভীর রাতে এ ধরনের অবৈধ গ্যাস সংযোগ দেওয়া হচ্ছে। আশাকরি গ্যাস ফারুকের এই অবৈধ গ্যাস সংযোগের বিষয়টি তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ ভালভাবে খতিয়ে দেখবেন। কারা কারা এর সাথে জড়িত তাদেরকে খুঁজে বের করবেন।

এ বিষয়ে জানতে নারায়ণগঞ্জ তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিসট্রিবিউশন কোম্পানীর ডিজিএম এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি কলটি রিসিভ করেননি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here