নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ শহরে কোরবানীর পশুর কোন হাট না থাকায় বিপাকে পরেছে শহরবাসী। পাশাপাশি ঈদের আগে ব্যস্ত সময়ে কোরবানীর পশু কিনতে দুরে যাওয়ার ঝক্কির চিন্তায় ক্ষোভ জানিয়েছে তারা। শহরের অধিবাসীদের জন্য আশেপাশে অন্তত একটি হাট রাখা ছিলো বলে অভিমত তাদের। আর তাই আগামীতে হাটের ইজারার সময় শহরবাসীর এ বিড়ম্বনার কথাটি মাথায় রাখতে সংশ্লিষ্ট দফতরের প্রতি আহবান জানিয়েছে নারায়ণগঞ্জ শহরবাসী।

সূত্রে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ শহরের কাছাকাছি কোন পশুর হাটের ইজারা দেয়নি প্রশাসন। হাটগুলো দেয়া হয়েছে সবই শহরের বাইরে।

অথচ, এক সময় বেশ কয়েকটা পশুর হাট ছিলো শহরের কাছাকাছি, যেমন বরফকল মাঠ, জিমখানা মাঠ, চারুকলা মাঠ, ওসমানী ষ্টেডিয়াম সংলগ্ন ক্রীড়া পরিষদের মাঠ। তখন শহরের মাসদাইর, জামতলা, চাষাঢ়া, মিশন পাড়া, ডন চেম্বার, খানপুর, আমলাপাড়া, গলাচিপা, দেওভোগেসহ আশেপাশের এলাকার মানুষ স্বাচ্ছন্দে কোরবানীর পশু কিনতে পারতেন।

কিন্তু সময়ের পরিক্রমায় বন্ধ করে দেয়া হয়েছে সব কয়টি হাটের ইজারা এবং বিকল্প হিসেবে শহওে ব্যবস্থা করা হয়নি কোন পশুর হাটের। ফলে এ অঞ্চলের মানুষকে এখন কোরবানীর পশু কিনতে একটু দুরের হাটগুলোতে যেতে হচ্ছে। তাই তারা এই বিড়ম্বনা থেকে মুক্তি পেতে শহরে একটি হাটের ব্যবস্থা করতে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

এ বিষয়ে মিশনপাড়া নিবাসী বেসরকারী চাকুরীজীবি আক্তারুজ্জামান নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে বলেন, এমনিতে বেসরকারী চাকুরীতে সময়ের বড় অভাব, তার উপর ঈদ উপলক্ষে কাজ বেড়ে যায় কয়েক গুণ। এরই মাঝে সময় বের করে কোরবানীর পশু কিনতে হবে। তাই বাড়ির আশেপাশে একটি হাট থাকলে ভালো হতো, কম সময়ে কিনে ফেলা যেতো। আগামীতে শহরে অন্তত একটি হাটের ইজারা দেওয়া হলে উপকার হয়।

আমলাপাড়ার বাসিন্দা ব্যবসায়ী সুলতান উদ্দিন বলেন, শহরের হাটগুলো দেওয়ার দায়িত্ব সম্ভবত নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন। আর সটি কর্পোরেশনতো সব সময় শহরবাসীর সাথে বিমাতাসুলভ আচরন করে আসছে। সাধারণ মানুষের চাহিদা পূরণের ক্ষেত্রে রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি পরিহার করা দরকার। তা না হলে নারায়ণগঞ্জে এবার নারায়ণগঞ্জের কাঁচপুরে ৫০০ ফিটের মধ্যে তিনটি হাটের পারমিশন নাকি দিয়েছে জেলা প্রশাসন। সাধারণ মানুষের জন্য কোরবানীর পশু কেনা সহজ করতেই জেলা প্রশাসনের এই উদ্যোগ। অথচ সিদ্ধিরগঞ্জ আর বন্দরে একাধিক হাট থাকলেও শহরে হাট নেই একটাও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here