নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জের প্রাণকেন্দ্র চাষাঢ়া হতে খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতাল হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জগামী নবাব সলিমুল্লাহ রোডের মেট্রো হল থেকে ডিসির বাংলো পর্যন্ত সড়কটির বেহাল দশা দীর্ঘদিন যাবত।
এ সড়ক দিয়ে চলাচলরত জনসাধারণকে তাই পোহাতে হচ্ছে সীমাহীন দূর্ভোগ। অথচ এ বিষয়ে নির্বিকার নারায়ণগঞ্জের দায়িত্বরতরা। বিশেষ করে নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়াকে প্রতিদিন এ সড়ক দিয়ে যাতায়াত করতে হলেও তিনি এ বিষয়ে কোন পদক্ষেপ না নেওয়ায় ক্ষুব্দ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন ভুক্তভোগী পথচারীরা। আর অবিলম্বে সড়কটি মেরামত করে চলাচলের উপযোগী করে তোলার দাবী তাদের।

সরেজমিনে সোমবার (৯ এপ্রিল) নবাব সলিমুল্লাহ সড়কে গিয়ে দেখা গেছে মেট্রো হলের সামনের রাস্তাটি একেবারেই ভেঙ্গে গেছে, জায়গায় যায়গায় সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্তের। ব্যস্ত এই সড়কে যানবাহনগুলো চলছে ঝুঁকি নিয়ে। মেট্রো হল থেকে আরেকটু এগুলো খানপুর হাসপাতালের সামনের অংশেও খানা কন্দে ভরপুর। আর এ ভাঙ্গা অংশ গিয়ে শেষ হয়েছে নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসকের বাসভবন পর্যন্ত। ভাঙ্গা এ সড়কে চলাচল করতে গিয়ে প্রায়শই ঘটছে দূর্ঘটনা। আর বৃষ্টির পানিতে গর্ত ভরাট হয়ে সৃষ্টি হচ্ছে সীমাহীন ভোগান্তি।

দীর্ঘদিন যাবত এই সড়কটির বেহাল দশা থাকলেও যথাযথ কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় তা নিরসন হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগী জনগন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ সড়কের ছবি ও ভিডিও আপলোড করে প্রতিবাদ জানালেও কোন প্রতিকার না পেয়ে হতাশা ঘিরে ধরছে তাদের। এ সড়কটি মেরামত করার জন্য নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা: সেলিনা হায়াত আইভী ও নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়ার দৃষ্টি আকর্ষণ করে ফেসবুকে বিভিন্ন পোষ্ট দিচ্ছে ভুক্তভোগীরা।

কেউ কেউ মন্তব্য করেন, ‘মানবদেহে ক্যান্সার হলে যেমন সহজেই চিকিৎসা হয়না, তেমনি এই গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোও ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ায় তা সংস্কারে কর্তৃপক্ষ কোন পদক্ষেপ নিচ্ছেনা।’

শাওন নামে একজন নারায়ণগঞ্জের জনপ্রিয় ফেসবুক গ্রুপ নারায়ণগঞ্জস্থান এ ভাঙ্গা এ সড়কের ভিডিও আপলোড করে লিখেন, ‘দৃষ্টি আকর্ষণ করছি মাননীয় সিটি মেয়র ডাক্তার সেলিনা হায়াত আইভি সাহেবা। আমরা নারায়ণগঞ্জবাসী আশা করি রোজার আগে খানপুর হাসপাতাল থেকে ডিসি সাহেবের বাসা পর্যন্ত, মেট্রো হল থেকে কালির বাজার এর বেহাল দুরবস্থা রাস্তাটি সংস্কার করে দেওয়ার ব্যবস্থা আপনি করে দিয়ে আমাদের উপকৃত করিবেন । সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন ধন্যবাদ’।

তার এ পোষ্টে মোহতাসিম নামে একজন কমেন্ট করেন, ‘লাভ নাই মেয়র শুধু দেওভোগ পাইকপাড়া ও নিতাইগঞ্জ এর কাজ নিয়ে ব্যস্ত। কোটি কোটি টাকা খরচ করে নিজের বাবার নামে পাঠাগার করায় ব্যস্ত অথচ অন্যান্য এলাকার জনদুর্ভোগ এর কথা তোয়াক্কা করেন না। কিছুদিন আগে এই রাস্তায় দূর্ঘটনা ঘটে একজন নিহত হয়। শুধুমাত্র এই রাস্তা না খানপুর মেট্রোহল থেকে কালিরবাজার এর রাস্তার অবস্থা ও অনেক খারাপ’।

সাবিহা শাহরিমা নামে অপর একজন কমেন্ট করেন,‘ নারায়ণগঞ্জের মেয়রের চেয়ে নারায়ণগঞ্জের ডিসির জন্য ব্যাপারটা লজ্জাজনক। কারন উনার বাসভবনের গেট থেকে বের হলেই দেখতে পাবেন রাস্তার বেহাল অবস্থা’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here