নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি মরহুম খাজা রহমত উল্লাহর কুলখানীতে এসে তার জন্য নিজেদের আক্ষেপের কথা জানালেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ও নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন মেয়র ডা: সেলিনা হায়াত আইভী।

মরহুম রহমত উল্লাহর স্মৃতিচারন করে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, ‘আমি খাজা ভাইকে গত ১২ বছর যাবত চিনি। আমাকে তিনি রাজনীতিতে প্রেরনা যুগিয়েছিলেন। মনে রাখবেন টাকা পয়সা আর ক্ষমতা দিয়ে একটি ফেডারেশন তৈরী করা যায় না। তিনি তার নিজ উদ্যোগে যতটুকু পেরেছেন বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনকে ধরে রাখার চেষ্টা করেছেন। এতো কিছুর পরও তার মূল্যায়ন কেউ করলেন না। আমার কষ্ট লেগেছে যখন দেখলাম মাওলানা ভাষানী হকি ষ্টেডিয়ামের উপরে কালো একটি পতাকা উড়ানো হয়েছে আর লাগানো হয়েছে খাজা ভাইয়ের ছবি। আমাদের খাজা ভাই ছবি হয়েই আমাদের মাঝে বেঁচে থাকবেন।’

শুক্রবার (২৭ অক্টোবর) বাদ আছর শহরের মর্গ্যান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজ মাঠ প্রাঙ্গনে নারায়ণগঞ্জের কৃতি সন্তান, জাতীয় ক্রীড়াবিদ ও বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি মরহুম খাজা রহমত উল্লাহ্ এর কুলখানীতে রুহের মাগফিরাত কামনায় পরিবারের আয়োজনে অনুষ্ঠিত মিলাদ ও দোয়া মাহফিল পূর্বক বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শাহরিয়ার আলম আরো বলেন, ‘আমি অবাক হতাম, প্রতিদিন খাজা ভাই এই নারায়নগঞ্জ থেকে কিভাবে হকি ফেডারেশনে যাতায়াত করতেন। আজ খাজা ভাই চলে যাওয়ায় বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের অপূরূনীয় ক্ষতি হয়েছে। তাই মাওলানা ভাষানী ষ্টেডিয়ামে খাজা ভাইয়ের জন্য একটি স্মৃতি রক্ষার দাবি জানিাচ্ছি।’

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন এর মেয়র ডা. সেলিনা হয়াত আইভী বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জ বাসীর গর্ব মরহুম রহমত উল্লাহ্ ভাই খুবই কম কথা বলতেন। আমরা এর জন্য তার সাথে রাগ করতাম। ২০১১ সাল এবং ২০১৬ সালে তিনি আমার নির্বাচনে সহযোগিতা করেছিলেন। বিএনপি সরকার আমলে তিনি ৭ বছর কারাভোগ করেছিলেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘মরহুম খাজা রহমত উল্লাহ্ হকি ফেডারেশন এবং দলে থেকেও তার জীবনে কিছুই হয়নি। নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের কমিটিতে এবার তাকে সহ-সভাপতির পদ দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তুু তা আর হলো না। মরহুম খাঁজা রহমত উল্লাহ্ স্মৃতি রক্ষার প্রস্তাব পাওয়া গেলে আমার পক্ষ থেকে যতটুকু করনীয় তা করা হবে।’

দোয়া মাহফিলে এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর কেন্দ্রীয় কমিটির ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিষ্টার মহিবুর চৌধুরী নওফেল, বাংলাদেশ হকি দলের ম্যানেজার মাহবুবুল আহসান রানা, হকি ক্রীড়াবিদ মো: হাবিব, জাতীয় সাবেক ফুটবলার আশরাফুদ্দিন চুন্নু, সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা আতাউর রহমান আতা, স্থপতি ইকবাল হাবিব, হকি ফেডারেশনের সাবেক সাধারন সম্পাদক ইসহাক আলম, বিকেএমইএ এর সাবেক সভাপতি ফজলুল হক, মরহুম খাজা রহমত উল্লাহ্র সহধর্মীনি, তার ভাই খাজা আহসান উল্লাহ, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এড. খোকন সাহা সহ রাজনৈতিক, ব্যবসায়িক, সামাজিক, ক্রীড়া সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

স্মরণ সভার পর পরিবারের পক্ষ থেকে আয়োজিত মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মিলাদ মাহফিল ও দোয়া-মোনাজাত শেষে সকলের মাঝে নেওয়াজ বিতরন করা হয়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here