নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান বলেছেন, বিএনপি’র চেয়ারপার্সণ বেগম খালেদা জিয়া বাংলাদেশের তিনবারের সফল প্রধাণমন্ত্রী ছিলেন। তিনি কখনো অন্যায়ের সাথে আপোষ করেননি। যতবারই দেশে গনতন্ত্র হরণ হয়েছে, ততবারই তিনি গনতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য সংগ্রাম করেছেন। আর এই সংগ্রাম করতে গিয়ে এই স্বৈরাচারী সরকারের নীল নক্সায় আজ তিনি কারাবন্দি। তাকে কারাগারে রেখে আবারো একটি পাতানো নির্বাচনের পাঁয়তারা করছে সরকার। কিন্তু বেগম জিয়াকে কারাগারে রেখে এদেশে কোন নির্বাচন হবে না, হতে দেয়া হবে না।

বিএনপি চেয়ারপার্সণ বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি’র উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বুধবার (২৫ এপ্রিল) সকাল দশটায় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের পিছনে চাষাঢ়া বালুর মাঠে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

কাজী মনির আরো বলেন, বিএনপি’র আগামীর রাষ্ট্রনায়ক তারেক রহমানকে নিয়ে যে ধরনের ছেলেমানুষী বক্তব্য দেয়া হচ্ছে, তার কোন ভিত্তি নেই। তারেক রহমান একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, একজন সাবেক রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সন্তান। সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রী তারেক রহমানকে নিয়ে বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য দিয়ে তাকে দেশে আসা থেকে বিরত রাখতে চাইছে। কিন্তু তারেক রহমান ঠিকই বাংলাদেশে আসবেন এবং দেশের মানুষের গনতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনে নেতৃত্ব দিবেন।


নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদ তার বক্তব্যে বলেন, সরকারের সাজানো মিথ্যা মামলায় বিএনপি’র চেয়ারপার্সণ বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দেওয়া হয়েছে। নেত্রীর মুক্তির দাবীতে সারাদেশের মতো নারায়ণগঞ্জেও শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন সংগ্রাম করছে বিএনপি’র নেতাকর্মীরা। কিন্তু শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির পরেও নারায়ণগঞ্জের ৭ টি থানায় ১৩ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি’র নেতাকর্মীদের নামে। আর এসব মামলায় প্রায় সাত শতাধীক নেতাকর্মীকে আসামী করা হয়েছে। মামলায় হামলায় জর্জরিত নেতাকর্মীরা সকল কিছুকে উপেক্ষা করে নেত্রীর মুক্তির দাবীতে তাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি অব্যহত রেখেছে। নেতাকর্মীদের এখন একটাই চাওয়া আর তাহলো নেত্রীর মুক্তি। গনতন্ত্রের মা উপাধী পাওয়া আমাদের আপোষহীন নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এই হায়েনা সরকারের কারাগার থেকে মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এই শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি অব্যহত থাকবে। সে পর্যন্ত আমরা কেউ ঘরে ফিরে যাবো না।

মানববন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সহ সভাপতি এড. আবুল কালাম আজাদ বিশ^াস, পারভেজ আহমেদ, লুৎফর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ হাসান রোজেল, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল আমিন, উজ্জল হোসাইন, জেলা যুবদলের সিনিয়র সহ সভাপতি সালাউদ্দিন মোল্লা, জেলা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল আলম রিপন, জেলা মহিলা দলের সাবেক আহবায়ক নুর নাহারসহ নেতাকর্মীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here