নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি’র সিনিয়র সহ সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেন খান বলেছেন, দীর্ঘ প্রায় দেড় বছর পর গত ১২ নভেম্বর ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যাগে মহা সমাবেশে করে বিএনপি। সেই সমাবেশে নারায়ণগঞ্জ থেকে গণজাগরন সৃষ্টিতে ব্যর্থ হয়েছে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি। তারা ঘরে বসে থেকে দায়িত্বে অবহেলা করেছে। তবে শহীদ জিয়ার আদর্শের সৈনিকেরা গৃহবন্দি নেতাদের ডাকের অপেক্ষায় বসে থাকেনি, নারায়ণগঞ্জ বিএনপি’র তৃণমূল নেতাকর্মীরা ঢাকার রাজপথে বিশাল শো ডাউনের মাধ্যমে প্রমাণ করেছে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি’র ঘাঁটি আগেও ছিলো এবং এখনও আছে।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি’র ১৪ নং ওয়ার্ডের উদ্যোগে আয়োজিত সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ণ কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধাণ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শনিবার (১৮ নভেম্বর) শহরের আলম খান লেনে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এড. সাখাওয়াত হোসেন খান আরো বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে দলকে সংগঠিত করতে সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কর্মসূচির ঘোষনা করা হয়েছিলো। কিন্তু কেন্দ্রীয় এই কর্মসূচিকে সফল করতে যারা নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি’র দায়িত্বে আছেন, তাদের অনীহা ছিলো। আর তাই আমি সিনিয়র সহ সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে মাঠে ময়দানে ছুটে বেড়িয়েছি কর্মসূচিকে সফল করতে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকার দেশে গণতন্ত্র হরণ করেছে। এদেশের মানুষের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। আর সে লক্ষ্যে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি গ্রহনযোগ্য নির্বাচনের দাবীতে বিএনপি আন্দোলন করে যাচ্ছে। কারন এদেশের ৮০ ভাগ মানুষ আর এই সরকারকে দেখতে চায় না। নিপেক্ষ নির্বাচন হলে দেশের জনগন এই সরকারকে আস্তাক’ড়ে নিক্ষেপ করবে। আর এটা বুঝতে পেরে সরকারের মাথা নষ্ট হয়ে গেছে। তাই তারা মিথ্যা মামলা দিয়ে বিএনপি’র নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করছে। এই যেমন গতকাল কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক একরামুল হককে গ্রেফতার করা হয়েছে। কিন্তু হামলা মালা দিয়ে এই সরকারের শেষ রক্ষা হবে না। আমি একরামুল হকসহ সকল বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের নি:শর্ত মুক্তি দাবী করছি।

১৪ নং ওয়ার্ড বিএনপি নেতা হাজী কামালউদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রদল নেতা ইব্রাহীম বাবুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ণ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি নেতা গুলজার হোসেন খান, হাজী ইসমাইল, মনির হোসেন খান, মোস্তফা কন্ট্রাক্টর, জেলা শ্রমিক দলের সভাপতি নজরুল ইসলাম খান, ফতুল্লা থানা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক নাজিম ইসলাম মিঠু, মহানগর ছাত্রদল নেতা আল আমিন প্রধান প্রমূখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here