নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ‘আমি চুন চাই না, দুধ চাই। কারন, আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা হচ্ছে দুধের মত ভাল। আর চুন পানিতে দিলেই মিশে যায়।’
মঙ্গলবার (২০ মার্চ) বিকেলে বক্তাবলী ইসলামিয়া সিনিয়র মডেল মাদ্রাসা মাঠে বক্তাবলী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত নির্বাচনী কেন্দ্র ভিত্তিক কমিটি গঠনের কর্মী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই কথা বলেন।

শামীম ওসমান অভিযোগ করেন, ‘আমার সাবেক এমপিদের কারনে আমি বিপদে পরে গেছি। সাবেক এমপি গিয়াস উদ্দিন ও কবরী কাজ তো করেই নাই, উল্টো মসজিদ কবরস্থানের টাকা খেয়ে ফেলেছে। আমার নেতা শওকত ভাই কে কারাগারে পাঠিয়েছে। তাই একটু অসুবিদা হইতাছে।’

তিনি দাবী করে আরো বলেন, ‘বাংলাদেশের এমপিদের মধ্যে আমি সবচাইতে বেশি কাজ করছি। বক্তাবলীতে এখন ফেরী চলছে। ২৫ কোটি টাকা ব্যায়ে শীঘ্রই বক্তবলীতে একটি টেকনিক্যাল স্কুল নির্মান করা হবে। আমি এমন কাজ করবো যা দেখার জন্য দূর-দূরান্ত থেকে মানুষ বক্তাবলীতে আসবে।’

এসময় শামীম ওসমান তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সাধারন মানুষের জন্য কাজ করার অনুরোধ করেন।

বক্তাবলী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আফাজ উদ্দিন এর সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও বক্তাবলী ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এম শওকত আলী।

আরো উপসিস্থত ছিলেন, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি নাজিম উদ্দিন আহাম্মেদ, মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগটনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, জেলা পরিষদের সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, জেলা যুবলীগ নেতা এহাসানুল হক নিপু, বক্তাবলী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক কামরুল ইসলাম, ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর মাষ্টার, আতাউর রহমান, অকিল উদ্দিন, জলিল গাজি, রাসেল চৌধুরী, বক্তবলী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বাবুল আহাম্মেদ, কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মানিক চান, ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুল হক, সাধারন সম্পাদক এম এ মান্নান, জেলা যুবলীগ নেতা সাব্বির আহাম্মেদ জুলহাস, যুবলীগ নেতা আনোয়ার ও প্রতিটি ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ এর নেতৃবৃন্দ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here