নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি কমান্ডার গোপীনাথ দাশ বলেছেন, শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্ত একজন অসুস্থ্য লোক। তাকে জামিনে রেখেও বিচার কাজ চালানো যেতো। এই অসুস্থ্য লোকটি যদি এই অবস্থায় মারা যায়, তবে এর দায় কে নেবে? তাই অবিলম্বে শিক্ষক শ্যামল কান্তির মুক্তি দাবী করছি।
শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তের বিরুদ্ধে হয়রানীমূলক মিথ্যা মামলা ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে মৌণ মিছিল শেষে মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

শনিবার (২৭ মে) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা আরো বলেন, যে ব্যাক্তি ঘুষ দিলো তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়া হলো না, অথচ যে নিলো তাকে গ্রেফতার করে কারাগারে প্রেরণ করা হলো। এতে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করা হচ্ছে। নৌকাকে ডুবানোর ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। হাজার বছরের শেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কণ্যা প্রধাণমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অনুরোধ, আপনি নৌকাকে বাঁচান। পাঁচ বছর আগে ঘুষ দেয়া হলো অথচ মামলা হলো ৫ বছর পরে। এটা খুবই রহস্যজনক। তাকে অবিলম্বে মুক্তি দেয়া হোক।

মানবন্ধন ও মৌণ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।    

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here