নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: চলন্ত ট্রাকে কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জে আটক ট্রাক চালক মেহেদি ও হেলপার তুহিন আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করেছেন।

রবিবার (৬ আগষ্ট) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আফতাবুজ্জামান ও আক্তারুজ্জামানের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক মো: সোহেল আলম।

উল্লেখ্য, ধর্ষণের শিকার কিশোরী গত মঙ্গলবার মায়ের সঙ্গে অভিমান করে বাড়ি থেকে গাজীপুর চৌরাস্তা এলাকায় চলে আসে। রাত ৯ টার দিকে একটি মালবাহী ট্রাকের চালক মেহেদী হাসান ও সহকারি হেলপার তুহিন তাকে একা পেয়ে জোরপূর্বক ট্রাকে তুলে নেয়। পথিমধ্যে চলন্ত গাড়িতে ওই চালক ও হেলপার পালাক্রমে তাকে কয়েক বার ধর্ষণ করে। সকালে সিদ্ধিরগঞ্জের এসিআই পানির কল এলাকায় ট্রাক পৌঁছলে গৃহবধু কান্না করে আর্ত চিৎকার করলে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে চালক ও হেলপার ট্রাক (ঢাকা-মেট্রো ট-০২-০৩৪৪) ফেলে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে ওই ধর্ষিতাকে উদ্ধার ও ট্রাকটি জব্দ করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় নিয়ে আসে।

এ ঘটনায় ধর্ষিতা বাবা বাদি হয়ে চালক ও হেলপারের বিরুদ্ধে ধর্ষনের মামলা দায়ের করে। ধর্ষণের শিকার কিশোরী গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া থানার মনিপুর এলাকায় বাসিন্দা।

এরপর পুলিশ বুধবার রাতে চালক মেহেদি হাসানকে গ্রেপ্তার করে। সে মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় থানার আলকাদিয়া গ্রামের মো: নবী শেখের ছেলে।

আর সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে পুলিশ তুহিনের মোবাইল ট্রাকিং করে বৃহস্পতিবার ভোর রাতে সাভার ফুলবাড়িয়ার বাওয়ালীপাড়া এলাকাস্থ মুন্তাজ ভান্ডারীর বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃত হেলপার তুহিন রাজশাহী জেলার পুটিয়া থানার পশ্চিম কানাইপাড়া গ্রামের মো: তমজিদের ছেলে।

এদিকে গ্রেফতারের পর আদালতে পাঠানো হলে ধর্ষনে অভিযুক্ত চালক মেহেদি ও হেলপার তুহিনের ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here