নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: আপন অনেকেই, কিন্তু কারো একার পক্ষে সবার মন রক্ষা করা তো আর সম্ভব নয়। তাই আসন্ন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন প্যানেল মেয়র নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ক্ষেত্রে ক্ষমতাসীন দলের প্রভাবশালী সাংসদ আলহাজ¦ একেএম শামীম ওসমানের ‘আশীর্বাদ’ পাওয়ার সুযোগ পেয়েছেন নাকি ৪ কাউন্সিলর।
আর প্রত্যাশী অনেক হওয়ায় প্রত্যক্ষ ভাবে কাউকে সমর্থন না জানিয়ে এমপি পরোক্ষ ভাবে ৪ জন কাউন্সিলরকে জানিয়েছেন সমর্থন। যা কিনা অনেকটাই অদৃশ্য!

বিশ^স্ত সূত্রে জানাগেছে, হাতে বেশী সময় না থাকায় আগামী মাসে অনুষ্ঠিতব্য নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ক্ষেত্রে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমানের ‘আশীর্বাদ’ পেতে তোরজোড় শুরু করে দেন তার অনুসারী কাউন্সিলররা।

কারন, গত বছর ডিসেম্বরে দ্বিতীয় মেয়াদে অনুষ্ঠিত নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপি, আওয়ামীলীগ ও জাতীয়পার্টি সমর্থিত যারা কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন তাদের অর্ধেকেরই বেশী কাউন্সিলর হচ্ছেন শামীম ওসমান সমর্থক।

আর তাই অক্টোবরে অনুষ্ঠিতব্য প্যানেল মেয়র নির্বাচনে ১, ২ ও ৩ নং পদে শামীম ওসমানের অনুসারী কাউন্সিলদেরই বেশী প্রার্থী হতে আগ্রহ পরিলক্ষিত হওয়ায় এখন সেই নির্বাচনে প্রার্থীতা হওয়ার ক্ষেত্রে শামীম ওসমানের ‘আশীর্বাদ’ পেতে জোর লবিং শুরু করে দেন সম্ভাব্য প্যানেল মেয়র প্রার্থী কাউন্সিলররা।

কারন, প্যানেল মেয়র নির্বাচনে শামীম ওসমানের ‘আশীর্বাদ’ যিনি পাবেন, কেবল তিনিই প্যানেল মেয়র নির্বাচনে তার অনুসারী হিসেবে প্রার্থী হতে পারবেন। কেননা, শামীম ওসমান এমন প্রার্থীদেরই সমর্থন দিবেন যারা অন্যন্য কাউন্সিলরদের ভোটে প্যানেল মেয়র নির্বাচিত হওয়ার ক্ষেত্রে শতভাগ নিশ্চয়তা পাবেন।

তাই তো, প্যানেল মেয়র-১ পদে বাংলাদেশ হোসিয়ারী এসোসিয়েশনের সভাপতি ও ১৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ নাজমুল আলম সজল এবং ১৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও বিশিষ্ট ক্যাবল ব্যবসায়ী আব্দুল করিম বাবুকে, প্যানেল মেয়র-২ পদে ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবলীগ সভাপতি আলহাজ¦ মতিউর রহমান মতি এবং প্যানেল মেয়র-৩ পদে সাবেক প্যানেল মেয়র শারমিন হাবিব বিন্নি নাকি প্রার্থী হতে পেয়েছেন শামীম ওসমানের অদৃশ্য ‘আর্শীবাদ’।

তবে বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিতে ১৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ নাজমুল আলম সজল এবং ১৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল করিম বাবুর সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তারা কেউই মুঠোফোন রিসিভ করেন নি।

আর সাংসদ শামীম ওসমানের ব্যবহৃত মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

এরআগে প্যানেল মেয়র নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণার পরেই প্যানেল মেয়র-১, ২ ও ৩ পদে প্রার্থী প্রার্থী হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করে শামীম ওসমানের ‘আশীর্বাদ’ পেতে চেষ্টা চালিয়ে যান তারই অনুগামী, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হাজী মো: ওমর ফারুক, ৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল, ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবলীগের আহবায়ক মতিউর রহমান মতি, ১৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শফিউদ্দিন প্রধান, ১৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নাজমুল আলম সজল, ১৭ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো: আব্দুল করিম বাবু ওরফে ডিস বাবু, ২৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সাইফুদ্দিন আহম্মেদ দুলাল, ২৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আফজাল হোসেন এবং প্যানেল মেয়র-৩ পদে সংরক্ষিত ১৩, ১৪, ১৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিল শারমিন হাবিব বিন্নি বলে সূত্রমতে জানাযায়।

এদিকে, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের প্রায় ১০ মাস পর সিটি মেয়র ডা: সেলিনা হায়াত আইভীর সদিচ্ছায় আগামী অক্টোবর মাসে অনুষ্ঠিত হবে প্যানেল মেয়র নির্বাচন।

নগর ভবনে মাসিক সভা শেষে যেখানে ভোটের মাধ্যমে পুরুষ প্যানেল মেয়র-১ ও ২ এবং একজন নারী প্যানেল মেয়র নির্বাচিত করবেন ২৭ টি ওয়ার্ডের ২৭ জন পুরুষ ও ৯ জন সংরক্ষিত আসনের নারী কাউন্সিলর।

প্যানেল মেয়র-১ যিনি নির্বাচিত হবেন, তিনি মেয়রের অবর্তমানে ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। আর মেয়রসহ প্যানেল মেয়র-১ যদি কোন কারনে কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকেন তাহলে পর্যায়ক্রমে প্যানেল মেয়র-২ ও ৩ দায়িত্ব পালন করবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here