নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি : ডাক্তার দেখোতে এসে ছিনতাইয়ের শিকার হলেন মুক্তা বেগম (৩৫) নামের এক গৃহিনী। কিন্তু বিধি বাম! টাকা ছিনতাইয়ের সময় স্থানীয় জনতা তানভীর (১৮) নামের ঐ ছিনতাইকারীকে গণধোলাই দিলে র‌্যাব-১১ এর কালিরবাজার শাখার সদস্যরা তাকে আটক করে নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় সোপর্দ করেন। এ ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় বাদী হয়ে গৃহিনী মুক্তা বেগম একটি মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেফতারকৃত ছিনতাইকারী তানভীর শহরের ২নং বাবুরাইল এলাকার হাতেম মিয়ার ছেলে।

শনিবার (১৩ মে) সকাল ১০ দিকে শহরের কালিরবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার বিবরনে গৃহিনী মুক্তা বেগম জানান, তিনি তার ছোট ভাই ও তার মেয়েকে নিয়ে চাঁদপুর জেলার মতলব থানা থেকে লঞ্চযোগে ডাক্তার দেখাতে নারায়ণগঞ্জ আসে সকাল ৮টার দিকে।

নারায়ণগঞ্জ খাঁনপুর ৩’শ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ডাক্তার দেখিয়ে তিনে সকাল ১০ টার দিকে শহরের কালির বাজার এসে তার মেয়ের জন্য একটি জামা কেনার সময় ছিনতাইকারী তানভীর তার ব্যাগ থেকে কৌশলে ১ হাজার ২ শত পঞ্চাশ টাকা নিয়ে যায়। ঐসময় তিনি চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এসে ওই ছিনতাইকারীকে ধরে গণধোলাই দেয়। পরে টহলরত র‌্যাব সদস্যরা এসে তাকে আটক করে থানায় সোপর্দ করেন।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আসাদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। মুক্তা বেগমের ছিনতাই হওয়া টাকা উদ্ধার পূর্বক তার হাতে সোপর্দ করা হয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here