নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: কোন জঙ্গি যাতে ইমাম হিসেবে নিয়োগ পেতে না পারে সেজন্য নারায়ণগঞ্জ জেলার সকল মসজিদের ইমামদের বায়োডাটা সংগ্রহের নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক মো: রাব্বী মিয়া।
রবিবার (১০ ডিসেম্বর) সকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা সার্কিট হাউসে অনুষ্ঠিত জেলার সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারনী আইনশৃংখলা কমিটির মাসিক সভায় সভাপতির বক্তব্যে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রতি এই নির্দেশনা দেন তিনি।

রাব্বী মিয়া আরো বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জের মসজিদগুলোর ইমামদের বায়োডাটা সংগ্রহ করতে হবে এবং একটি ডাটাবেজ তৈরী করতে হবে। কোন জঙ্গি যাতে ইমাম হিসেবে নিয়োগ না পায়, সে জন্যই এ ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে। তাছাড়া শুক্রবার জুমা’র নামাজে আরবীতে খুতবা পাঠ করা হয় বলে সাধারণের তা বোঝা সম্ভব হয় না। খুতবার অর্থ বাংলায় বুঝিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করতে আমি সরকারের কাছে প্রস্তাব করেছি। সেক্ষেত্রে দুইজন দাঁড়িয়ে খুতবা দিবে, একজন আরবীতে বলবে, অন্যজন বাংলায় তার অনুবাদ করে সকলকে শোনাবে।’


তিনি আরো বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা হাসপাতালের আশেপাশে বেশ জোরালো কয়েকটি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করতে হবে। হাসপাতালের আশেপাশে গড়ে উঠা ক্লিনিক ও ডায়াগনষ্টিক সেন্টারগুলোর কাগজপত্র ও পরিবেশ পরীক্ষা করতে হবে। তাছাড়া দালালদের দৌড়াত্মও প্রতিরোধ করতে হবে। নারায়ণগঞ্জের পার্ক, নদীর ঘাট এবং ঘাটে নৌকা, নদীতে থেমে থাকা জাহাজ কিংবা চাষাঢ়া শহীদ মিনারে মোবাইল কোর্ট চালাতে হবে যাতে স্কুল কলেজের ইউনিফর্ম পরা অবস্থায় কেউ আড্ডা দিতে না পারে। মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে সেসব শিক্ষার্থীদের ধরে এনে তাদের বাবা মায়ের কাছে বুঝিয়ে দিতে হবে কিন্তু কোন জেল জরিমানা করা যাবে না।’

সভায় নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘আমরা এই সভায় শহরের সব বিশিষ্ট ব্যাক্তিরা বসে মাদক নিয়ে আলোচনা করি। অথচ আমাদের অনেকের সন্তানই এই মাদকের সাথে জড়িত। তাই আমরা আগে নিজে সতর্ক হই, নিজের সন্তানদের সঠিক খোঁজ খবর রাখি, তাহলে সমস্যা অনেকখানিই সমাধান হয়ে যাবে।’

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) আসনের এমপি আলহাজ¦ নজরুল ইসলাম বাবু, জেলা সিভিল সার্জন ডা. এহসানুল হক, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান, পিপি অ্যাডভোকেট ওয়াজেদ আলী খোকন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাজনীম জেবিন বিনতে শেখ, বন্দর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা পিন্টু বেপারী, সোনারগাঁ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিনুর ইসলাম, আড়াইহাজার উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা সুরাইয়া আক্তার, বিকেএমইএ’র সহ সভাপতি (অর্থ) হুময়ুন কবির শিল্পী, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা কানিজা ইয়াসমিন, সদর উপজেলার চেয়ারম্যান এড. আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, বন্দর উপজেলার চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মুকুল, মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার শিপন প্রমূখ ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here