নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ সদর থানার ১নং বাবুরাইল ৪৬নং মোবারক শাহ রোড এলাকার রুবেল (৩৫) নামের এক ব্যাক্তিকে কুপিয়ে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করেছে স্থানীয় এলাকার সন্ত্রাসীরা।
পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গত ১২ জুন রাত সাড়ে ১০ টায় শহরের জিমখানা মদিনা মার্কেটের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় ঘটনার পরিদিন রুবেল বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-২৭/২৯২।

মামলায় আসামীরা হলেন, স্থানীয় ১নং বাবুরাইল মোবারক শাহ এলাকার মৃত আশ্রাফ উদ্দিনের দুই ছেলে খোকন (৩৫) ও সেলিম (৪৫), একই এলাকার আব্দুল মজিদ মিয়ার ছেলে জুম্মন (২৮), মইন উদ্দিন মিয়ার ছেলে মিন্টু (২৭) ও রিয়াদ (২৫) লেদু মিয়ার ছেলে রাসেল (২৮) সহ অজ্ঞাত নামা আরো ৬/৭জন। ঘটনার স্বীকার রুবেল স্থানীয় এলাকার মৃত সালাউদ্দিন নান্না মিয়ার ছেলে।

ঘটনার বিবরনে মামলার বাদী রুবেল জানান, তিনি একজন সাধারন ব্যবসায়ী গত (১২জুন) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শহরের জিমখানা মদিনা মার্কেট এর সামনে আসলে উক্ত আসামীরা কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই দেশীয় অস্ত্র সজ্জিত হয়ে তাকে এলোপাথারী ভাবে লোহার রড দিয়ে পেটাতে থাকে। মামলার প্রধান আসামী খোকন এ সময় একটি ধারালো চাকু দিয়ে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার গলায় ও হাতে কোপ দেয়। এ সময় তার সঙ্গে থাকা সাড়ে ৮হাজার টাকা ও এক ভড়ি ওজনের একটি স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয় সন্ত্রাসীরা। রক্তাক্ত আহত অবস্থায় সে মাটিতে পড়ে চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে পালিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। পরে তাকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ ১’শ শয্যাবিশিষ্ট ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে পুরুষ সার্জারী ওয়ার্ডের ২নং বেডে ভর্তি করা হয়।

তিনি আরো জানান, উক্ত আসামীরা খুবই ভয়ংকর প্রকৃতির। এলাকার সর্বত্র অত্র সন্ত্রাসীরা নিরহ মানুষদেরকে প্রতিনিয়তই ব্ল্যাকমেইলিং সহ নানা ধরনের অপরাধ করে আসছেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) মিন্টু মন্ডল জানান, আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here