নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: সাধারন মানুষকে জুজুর ভয় দেখিয়ে স্তব্দ করে রাখতে চায় শামীম ওসমান বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন মেয়র ডা: সেলিনা হায়াত আইভী।
বুধবার (৭ মার্চ) সন্ধ্যায় শহরের দেওভোগ লেকের মুক্তমঞ্চে তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী হত্যা ও বিচারহীনতার পাঁচ বছর উপলক্ষে আয়োজিত শিশু সমাবেশের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই মন্তব্য করেন।

মেয়র আইভী বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জকে স্তব্দ করে রাখার জন্য শামীম ওসমান বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করেন। গত ১৬ জানুয়ারী নিরীহ মানুষদের উপর সশস্ত্র আক্রমন করলো। সেদিন যদি আমাকে ও আরো কয়েকজনকে হত্যা করতে পারতো, তাহলে এই নারায়ণগঞ্জ আবার স্তব্দ হয়ে যেতো। কিন্তু নারায়ণগঞ্জের মানুষ এখন আর ভয় পায় না। এ শহরের মানুষ প্রচন্ডভাবে সাহসী হয়ে উঠেছে। তার প্রমান বিগত ৫ বছর যাবত দিচ্ছে এবং ১৬ জানুয়ারী দিয়েছে। ওই সন্ত্রাসী নিয়াজুল যখন আমার দিকে পিস্তল উঁচিয়ে তেড়ে আসছিলো। তখন কারো সহযোগিতা পাইনি। কিন্তু নারায়ণগঞ্জের সাধারন মানুষ খালি হাতে আমাকে রক্ষা করেছে।

তিনি আরও বলেন, ২০১৩ সালের ৬ই মার্চ ত্বকী নিখোঁজ হয়। ৮ই মার্চ ত্বকীর লাশ শীতলক্ষ্যায় পেয়েছিলাম। ত্বকী তার নিজের কারণে খুন হয় নাই। ত্বকীকে খুন হতে হয়েছে তার বাবাকে শাস্তি দেবার জন্য। তবে শুধু তার বাবাকে শাস্তি দেবার জন্যই নয়। সমগ্র নারায়ণগঞ্জবাসীকে স্তব্দ করে রাখার জন্য যে পদ্ধতিগুলো দীর্ঘদিন যাবত করে আসছিলো, তারই একটি এই ত্বকী হত্যা।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক ও ত্বকীর পিতা রফিউর রাব্বি, বরেন্য শিক্ষাবিদ হায়াত মাহমুদ, নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবে সভাপতি মাহবুবুর রহমান মাসুম, সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের সদস্য সচিব কবি হালিম আজাদ, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি জিয়াউল ইসলাম কাজল, নারায়ণগঞ্জ চারুকলা ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ শামসুল আলম আজাদ ও প্রমুখ৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here