নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: প্রধান অতিথিকে বরন করতে হবে, তাই প্রখর রোঁদের মধ্যে অতিথির আগমনের অপেক্ষায় স্কুল কম্পাউন্ডে দাঁড়িয়ে রাখা হয়েছিল কোমলমতি ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের। প্রায় ঘন্টা খানেক অপেক্ষার পর যখন অনুষ্ঠানস্থলে প্রধান অতিথি লায়ন্স গভর্নর শরীফুল হক রতন আসলেন, তখন ফুলের পাপড়ি ছিটিয়ে অতিথিকে বরণ করার পরেই শিক্ষার্থীরা শ্রেণীকক্ষে গিয়ে ক্লান্ত হয়ে পড়েন।

শনিবার (১৪ অক্টোবর) দুপরে কাশীপুর ইউনিয়নের ভোলাইল ৬২ নং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে। আর কাউকে বরন করার জন্য স্কুল শিক্ষার্থীদের রোঁদে দাঁড় করিয়ে রাখতে হাইকোর্টের নির্দেশনা থাকলেও স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি শামীম আহম্মেদ একজন জনপ্রতিনিধি হয়েও বেমালুম ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের প্লেট হাতে রোঁদে দাঁড় করিয়ে রাখেন। যা দেখে ক্ষোভে ফুঁসতে থাকেন শিক্ষার্থীদের অভিভাবকেরা।

শুধু তাই নয় অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি যখন স্কুল প্রাঙ্গনে ক্ষুদে শিশুদের সাথে ফটোসেশনের জন্য শহীদ মিনারে উঠে বসেছিলেন, তখন তার পাশে বসা ছোট শিশুরা তাদের পায়ের জুতা খুলে পবিত্র শহীদ মিনারে উঠে বসলেও খোদ তার মত একজন বিজ্ঞ ব্যাক্তিই জুতা পায়ে শহীদ মিনারে উঠে বসেন। যা দেখে উপস্থিত অনেকে মন্তব্য করেন, যারা পবিত্র স্থানের যথাযথ সম্মান, মর্যাদা দিতে জানেন না, তাদের কখনো দায়িত্বশীল কোন পদেই থাকা ঠিক না। এমনকি কেউ কেউ শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন।

জানাগেছে, শনিবার ভোলাইল ৬২ নং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে লায়ন্স এর উদ্যগে বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা, বৃক্ষ রোপন ও অসহায় শিশুদের সুন্নতে খাৎনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। যেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, লায়ন্স গভর্নর শরীফুল হক রতন।

এই সময় উপস্থিত ছিলেন, মুক্তিযোদ্ধা এড. ফজলুল হক, এড. শিমুল আহাম্মেদ, এড. হোসেন, এড. শিমুল আহাম্মেদ, এড. সাদিয়া আফরোজ মুক্তি, লায়ন্স জেলার প্রেসিডেন্ট সাইদুল্লাহ হৃদয়, স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি শামীম আহাম্মেদ, স্কুলের প্রধান শিক্ষকসহ অন্যন্য শিক্ষক ও অভিভাবকবৃন্দ।

এদিকে, হাইকোর্টের নির্দেশনা সত্বেও অতিথিকে বরণের জন্য স্কুল শিক্ষার্থীদের প্রখর রোঁদে দাঁড় করিয়ে রাখ হলো কেন জানতে চাইলে, এমন প্রশ্নের কোন সদুত্তর দিতে পারেন নি ভোলাইল ৬২ নং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি শামীম আহাম্মেদ।

তবে এই ব্যাপারে তদন্ত করে প্রয়োজনে স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার আশ^াস দিয়েছেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাসনিম জেবিন বিনতে শেখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here