নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: প্রিয়াংকা আক্তার (১৪) নামে জেএসসি পরীক্ষার্থীকে জবাই করে হত্যা করে দুই বাড়ীর একটি গলিতে ফেলে দেয়া হয়েছে।

রবিবার (৫ নভেম্বর) বেলা ১১ টায় উপজেলার তারাব পৌরসভার বরাব কবরস্থান রোড এলাকার ওই গলির ভিতর থেকে ওই শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। হত্যাকান্ডের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে মাসুম নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। প্রিয়াংকা আক্তার হাজী আয়েত আলী ভুইয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী। প্রিয়াংকা উপজেলার বরাব এলকার ডাঃ মহিউদ্দিনের মেয়ে।

রূপগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আমিনুর রহমান জানান, শনিবার বিকেলে প্রিয়াংকা প্রাইভেট পড়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। প্রাইভেট পরতে গিয়ে প্রিয়াংকা বাড়িতে ফিরে আসেনি। যথা সময়ে বাড়িতে ফিরে না আসায় পরিবারের লোকজন বিভিন্ন স্থানে খুজাখুজি করতে থাকে।

পরে রবিবার বেলা ১১ টায় নিহত শিক্ষার্থীর গলাকাটা মরদেহ পরে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে শিক্ষার্থীর মরদেহটিকে উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here