নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: ৪৬তম জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত র‌্যালীর জন্য প্রায় এক ঘন্টা নারায়ণগঞ্জের ব্যস্ততম এলাকা চাষাঢ়ার একপাশের সড়ক বন্ধ করে রাস্তায় ব্যানার নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকার ফলে সীমাহীন ভোগান্তিতে পরেছেন পথ চলতি নগরবাসী। তাছাড়া প্রচন্ড রোদের মধ্যে এতো দীর্ঘ সময় দাড়িয়ে থাকায় জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে আসা সমবায় কর্মী নারী-পুরুষকেও দুর্ভোগে পরতে হয়েছে।

শনিবার (৪ নভেম্বর) সকাল ১১ টায় র‌্যালী শুরু হওয়ার কথা থাকলেও নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া প্রায় ৩৫ মিনিট দেরীতে পৌছানোয় নগরবাসীর ভোগান্তি দীর্ঘায়িত হয় বলে জানা গেছে।


সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা গেছে, সকাল এগারোটায় র‌্যালী শুরু হওয়ার কথা থাকলেও সাড়ে দশটা থেকেই সমবায় কর্মকর্তারা চাষাঢ়ার সমবায় মার্কেটের সামনের রাস্তাটি দখল করে ব্যানার নিয়ে দাঁড়িয়ে ফটোসেশন করতে থাকেন। এর ফলে ব্যস্ত এই সড়কে দেখা দেয় তীব্র যানজট। প্রচন্ড গরমের মধ্যে নগরবাসীকে যানজটে আটকে থাকতে হয় দীর্ঘক্ষণ আর পোহাতে হয় চরম ভোগান্তি। এগারোটায় র‌্যালী শুরু হওয়ার কথা থাকলেও জেলা প্রশাসক এসে না পৌছানোয় সে ভোগান্তির মাত্রা বাড়তে থাকে কয়েকগুণ। তাছাড়া সমবায় দিবস উপলক্ষে জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে র‌্যালীতে অংশ নিতে আসা সাধারণ মানুষ কড়া রোদে দাড়িয়ে থেকে রীতিমতো অসুস্থ্য হয়ে যাওয়ার উপক্রম সৃষ্টি হয়। অবশেষে এগারোটা পঁয়ত্রিশ মিনিটে জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া এসে পৌছালে র‌্যালী শুরু হয়।

এদিকে যানজটে আটকে থাকা সাধারণ মানুষকে দেখা গেছে এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করতে। এ সময় ক্ষোভের সঙ্গে জনৈক পথচারী বলেন, আমাদের সময়ের কোন মূল্যই নেই প্রশাসনের কাছে। র‌্যালী করবে ভালো কথা, তাই বলে এক ঘন্টা আগে থাকতে রাস্তা দখল করে দাড়িয়ে থাকারতো কোন মানে হয় না। এমনিতেই যানজটের শহর এই নারায়ণগঞ্জ, তার উপর প্রশাসনের উদাসীনতায় যদি সেটা আরো দীর্ঘায়িত হয়, তাহলে আমাদের মতো সাধারণ মানুষের কিইবা বলার থাকে!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here