নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনেই দলীয় প্রার্থী দেয়ার দাবী জানানোর পাশাপাশি নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) এতদিন যাবত ‘নৌকার’ যোগ্য প্রার্থী হিসেবে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) এর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডা: জাফর চৌধুরী বীরুকে দাবী করে আসছেও এখন হঠাৎ ‘ইউটার্ন’ দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এড. আবু হাসনাত মো: শহীদ বাদল ওরফে ভিপি বাদল।

তিনি বেশ কয়েক মাস যাবত নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাইয়ের সাথে সম্পর্কের দূরত্ব সৃষ্টি করে এই স্বাচিপ নেতা বীরুকে সাথে নিয়ে জেলা আওয়ামীলীগের ব্যানারে দলীয় কর্মসূচী পালন করে আসলেও হঠাৎ ভোল পাল্টে এখন সোনারগাঁয়ের আসনে ‘নৌকার’ যোগ্য প্রার্থী হিসেবে সাবেক সাংসদ আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাতকে দাবী করেন।

আবার কায়সার হাসনাতকে যোগ্য প্রার্থী দাবী করার ঠিক পরের দিনই ভিপি বাদল সোনারগাঁয়ে আরেকটি জনসভায় যোগ দিয়ে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আলহাজ¦ মাহফুজুর রহমান কালামকে ‘নৌকার’ যোগ্য প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেন।

পরপর দুইদিন একই স্থানে পৃথক দু’টি দলীয় জনসভায় যোগ দিয়ে ভিপি বাদল প্রত্যেকেরই মন রক্ষার্থে রাজনৈতিক কৌশল হিসেবে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে সমর্থণ জানানোয় এখন তৃণমূলে প্রশ্ন উঠেছে, আসলেই ভিপি বাদল কার? বীরুর, কায়সারের নাকি কালামের।
জেলা আওয়ামীলীগের একজন শীর্ষ নেতার মুখে পরপর দু’দিন দুই নেতা আর তার পূর্বে আরেক নেতাকে যোগ্য বলে দলীয় কার্যক্রম চালিয়ে আসা ভিপি বাদলের রাজনৈতিক চরিত্র প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন তৃণমূল নেতৃবৃন্দ।

তাদের মতে, নির্বাচনে অনেকেই দলের মনোনয়ন প্রত্যাশা করে থাকেন। কিন্তু তাই বলে তো আর সবার মন রক্ষা করা যায় না। প্রকৃতপক্ষে যিনি যোগ্য তিনিই কেবল মনোনয়ন প্রাপ্তির ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পেয়ে থাকতে পারেন। কিন্তু ভিপি বাদল তিন জন নেতাকেই যোগ্য দাবী করলেও নির্বাচনের সময় মনোনয়ন পত্রে সুপারিশের ক্ষেত্রে তিনি কাকে অগ্রাধিকার দিবেন, সেটাও বিবেচ্য বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

দেখাগেছে, জেলা আওয়ামীলীগের ব্যানারে শহরের দলীয় কার্যালয়ে বাদল সম্প্রতি যত কর্মসূচীই পালন করছেন, সবগুলোতেই হেভীওয়েট নেতাদের মধ্যে একমাত্র আওয়ামী পন্থী চিকিৎসকদের সংগঠন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) এর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডা: আবু জাফর চৌধুরী বীরুকেই তার পাশে থাকতে দেখা গেছে। যা দেখে তৃণমূলের অনেকেই মন্তব্য করেন, আগামী নির্বাচনের আগ মূহুর্ত পর্যন্ত নাকি বাদলের সার্বিক ‘ব্যাকআপ’ হচ্ছেন বীরু।

কারন, বাদল নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হওয়ায় যেমন তার একজন ডোনার প্রয়োজন, তেমনি জেলা আওয়ামীলীগের সমর্থনে দলীয় মনোনয়ন প্রাপ্তির ক্ষেত্রে বীরুরও বাদলের প্রয়োজন রয়েছে। তাই উভয়েই এখন উভয়ের জন্য অত্যাবশকীয় হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন তৃণমূল নেতৃবৃন্দ।

কিন্তু গত ৫ নভেম্বর বিকেলে উপজেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মোগরাপাড়া চৌরাস্থা এলাকার উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ের সামনে ৩রা নভেম্বর জেল হত্যা দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ভাষন জাতিসংঘ (ইউনেস্কো) আন্তর্জাতিক রেজিষ্টার স্মারকে ‘মেমোরী অব দ্যা ওয়ার্ল্ড’ ইন্টার ন্যাশনাল রেজিষ্টারে অন্তুর্ভুক্ত হওয়ায় সোনারগাঁ উপজেলা যুবলীগের উদ্যোগে জনসভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য কালে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এড. আবু হাসনাত মো: শহীদ বাদল আগামী নির্বাচনে সোনারগাঁয়ে ‘নৌকার’ মাঝি হিসেবে সাবেক সাংসদ আবাদুল্লাহ আল কায়সার হাসনাতকে আখ্যায়িত করেন।

তিনি দাবী করে বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জ জেলার ৫টি আসনে আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকে যে হাওয়া লেগেছে তা থামানো যাবে না। জনত্রেনী শেখ হাসিনা নৌকার মনোনয়ন যাকে দিবেন এই সোনারগাঁবাসী তার হয়ে কাজ করবেন। আমি বীরু কালাম বুঝি না, নৌকার কান্ডারী হিসেবে থাকবেন কায়সার হাসনাত। আমাকে যখন যে ডাকবে আমি তখনই তাদের ডাকে সাড়া দেবো। কারণ আমি নৌকার সমর্থক। নৌকার সমর্থকদের একত্রে করতে আমার যা করা দরকার আমি তাই করবো।

উক্ত জনসভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক সাংসদ আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত।

ঠিক তার পরেরদিনই একই স্থানে সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত এক জনসভায় বক্তব্যকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এড. আবু হাসনাত মো: শহীদ বাদল একমাত্র ‘নৌকার’ প্রার্থী হিসেবে সোনারগাঁয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আলহাজ¦ মাহফুজুর রহমান কালামের নাম ঘোষণা করেন।

ভিপি বাদল বলেন, ‘সোনারগাঁয়ে নৌকার একাধিক প্রার্থী থাকলেও একমাত্র কালাম কেন্দ্রীয় ভাবে এগিয়ে এবং জেলা আওয়ামীলীগের কর্ণধার একেএম শামীম ওসমান সহ আমাদের আস্থাভাজন হেভীওয়েট ও নৌকার যোগ্য প্রার্থী।’
আর তাই সোনারগাঁ আওয়ামীলীগের তৃণমূল এখন প্রশ্ন তুলেছেন আসলেই ভিপি বাদল কার?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here