নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: ‘বিচারহীনতার সংস্কৃতির বিরুদ্ধে সোচ্চার হোন, ধর্ষক ও নিপীড়কদের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তুলুন’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে সারাদেশে ধর্ষক ও নিপীড়কদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছে নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোট।
বৃহস্পতিবার (৩ আগষ্ট) বিকাল ৫টায় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব মিলনায়তনের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি এড. জিয়াউল ইসলাম কাজলের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের প্রধান উপদেষ্টা রফিউর রাব্বি।

প্রধান অতিথির বক্তেব্যে রফিউর রাব্বি বলেন, নারায়ণগঞ্জ সহ সারা দেশে আত্যাচার আর নিপীড়ন আজ নিন্দার ঝড় উঠেছে। আর এর জন্য দায়ী এই তুফান সরকার। তুফান সরকারের পেছনে রয়েছে আজকের গডফাদাররা। সরকার নিরুপায় হলে এইসব গডফাদারদের স্মরনাপন্ন হয়। সারা দেশের এ সকল ঘৃণ্য অত্যাচারের চিত্র এখন এক হয়ে গেছে। এই তুফান সরকাররা অবৈধভাবে টাকা ইনকাম করে। সাধারন জনগন এ সকল অন্যায় আর অত্যাচারের প্রতিবাদ করলে তুফান সরকাররা তখন দল থেকে তাদের নেতাকর্মীদের বহিস্কার করেন।

সাত খুনের ঘটনার মূল হোতা নূর হোসেন সম্পর্কে তিনি আরো বলেন, নারায়ণগঞ্জে এমন কোন অপকর্ম নাই যে নূর হোসেন করেন নাই। তার বিরুদ্ধে অতীতে কখনো প্রশাসন কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেন নাই। ফাঁসির রায় হওয়ার পরও তার এলাকায় মাদক ব্যবসা এখনও বন্ধ হয় নাই। এসব গডফাদাররা এই তুফান সরকারের ঘাড়ের উপর বসে তাদের সকল অপকর্ম করে বেড়াচ্ছে। এসব গডফাদারদের দিয়ে চাঁদাবাজি, খুন, ডাকাতি ও ধর্ষণ করানো হচ্ছে। তুফান সরকাররাই এদেশে নূর হোসেনদের মত গডফাদারদের তৈরী করেছে।

রাব্বি বলেন, কে নারায়ণগঞ্জে মাদক ব্যবসা করে তা সকলেরই জানা আছে। গডফাদারদের ছবি সম্বলিত বিভিন্ন জায়গায় বিল বোর্ডগুলো দেখলেই বোঝা যায় এদের পেছনে কারা কারা আছে। এই তুফান সরকারদের অত্যাচার আর জুলুম আমাদেরকে দিনের পর দিন সহ্য করতে হচ্ছে। যতদিন না

পর্যন্ত এই তুফান সরকারদের গডফাদারদের রোধ করা না যাবে ততদিন দেশে হত্যা, ডাকাতি ও রাহাজানির মত ঘটনা ঘটতেই থাকবে। এদেরকে রোধ করা না গলে এগুলো কখনোই বন্ধ হবে না। যে সরকারই ক্ষমতায় আসে তখনই তারা র্নিলজ্জ হয়ে যায়। যারা দেশে নূর হোসেন তৈরী করে তাদের আইনের আওতায় এনে বিচার করতে হবে।

মানববন্ধনে এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সাধারন সম্পাদক এড. আওলাদ হোসেন, বাসদ সমন্বয়ক নিখিল দাস, কমিনিউষ্ট পার্টির জেলার সাধারন সম্পাদক শিবনাথ চক্রবর্তী, খেলাঘর জেলা সভাপতি রথিন চক্রবতৃী, জেলা সাংস্কৃতিক জোটের উপদেষ্টা ভবানী শংকর রায়, নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সাধারন সম্পাদক আব্দুল রহমান সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here