নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: সরকারি তোলারাম কলেজের অনার্স ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী শাহরিয়াজ মাহমুদ শুভ্র হত্যাকান্ডের রহস্য উন্মোচন করতে সক্ষম হয়েছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।
এঘটনায় ৪ ছিনতাইকারীকে গ্রেফতারসহ ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত একটি সিএনজি ও দুটি ছুরি উদ্ধার করেছে ডিবি।

বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সকালে জেলা গোয়েন্দা কার্যালয়ে এক সংসাব সম্মেলনে এতথ্য নিশ্চিত করেছেন ডিবির এসআই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো: মফিজুল ইসলাম পিপিএম।

তিনি জানান, ‘গত ৮ সেপ্টেম্বর শুভ্র ঢাকা মিরপুরে যাওয়ার উদ্দেশ্যে গ্রেফতাকৃত ছিনতাইকারীদের সিএনজি গাড়ীতে উঠে। কিছুদূর যাওয়ার পর ছিনতাইকারীরা শুভ্রর নিকট থাকা মোবাইল ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে তাকে হাত পা বেঁধে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডস্থ ভূইগড় এলাকায় একাটি ডোবায় ফেলে মৃত্যু নিশ্চিত করে পালিয়ে যায়। এরপর পুলিশ সুপার মহোদয়ের নির্দেশে মামলাটি ডিবিতে স্থানান্তর করা হলে শুব্রর ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি ট্র্যাকিং করে গত ১১ সেপ্টেম্বর রাতে ঢাকার শনি আখড়া এলাকা থেকে ছিনতাইকারীদের গ্রেফতার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ছিনতাইকারীরা শুভ্র হত্যা কান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে বলে জানান তিনি।

গ্রেফতারকৃত ছিনতাইকারীরা হলেন, আল আমিন (২৬), জুয়েল (২৪), অমিত (২২) ও জালাল (২৮)।

এএসআই শামীম জানান, আল আমিন, জুয়েল, অমিত ও জালাল প্রতিরাতেই বিভিন্ন স্থানে ছিনতাই করতো।

উল্লেখ্য, গত ৮ সেপ্টেম্বর শুক্রবার ভোর ৬টায় সরকারি তোলারাম কলেজের অনার্স তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শাহরিয়াজ মাহমুদ শুভ্র নিখোঁজ হন। এর ২ দিন নিখোঁজ থাকার পর ফতুল্লা থানাধীন ভুঁইগড় এলাকায় অজ্ঞাত অবস্থায় তার লাশ পাওয়া যায়। তারপর ১০ সেপ্টেম্বর পরিবারের সদস্যরা সেই লাশের জুতা শার্ট ও আনুসাঙ্গিক শুভ্রকে সনাক্ত করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here