নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: যেহেতু ধর্মে কোন নিয়ন নেই, সেহেতু দূর্গোৎসবে মদ পান করে কেউ মাতলামি করলেই ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুঁশিয়ারী উচ্চারন করে দিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক-সার্কেল) মো: শরফুদ্দিন।
মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টায় সদর মডেল থানা অডিটরিয়ামে আসন্ন শারদীয় দূর্গোৎসব উপলক্ষ্যে থানাধীন ৩৪ টি পূজা মন্ডপের নেতৃবৃন্দদের সাথে মতবিনিময় কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই হুঁশিয়ারী দেন তিনি।

প্রথমে এএসপি পূজা উদযাপন নেতৃবৃন্দদের কাছে জানতে চান, দূর্গোৎসবে মদ পান করা কোন ধর্মীয় রীতিতে আছে কিনা? তখন পূজা উদযাপন কমিটির নেতৃবৃন্দরা না সূচক উত্তর দিলে এএসপি মদ্যপায়ীদের উদ্দেশ্যে এই হুঁশিয়ারী উচ্চারন করেন।

জঙ্গিবাদের ব্যাপারে মো: শরফুদ্দিন বলেন, ‘জঙ্গিরা যেখানে হামলা করে থাকে, সেই স্থানে কমপক্ষে দেড়মাস পূর্বে বাসা ভাড়া নিয়ে অবস্থান করে তারা। তাই আপনাদের পূজা মন্ডপ গুলোর আশেপাশের বাড়ী গুলোতে খোঁজ নিবেন, গত এক দেড় মাসের মধ্যে নতুন কেউ বাসা ভাড়া নিয়েছে কিনা। যদি কাউকে আপনাদের সন্দেহ হয় তাহলে আমাদের জানাবেন। উৎসব মুখর পরিবেশে শারদীয় দূর্গোৎসব উদযাপনের লক্ষ্যে পুলিশ প্রশাসন যথেষ্ট নিরাপত্তা প্রদান করবে।’

এসময় তিনি পূজা মন্ডপের পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দসহ মন্ডপ গুলোতে দায়িত্ব প্রাপ্ত সকল ভলান্টিয়ারদের ছবিসহ পরিচয় পত্র তৈরী করে ফটোকপি থানায় জমা দেয়ার আহবান জানান।

এরআগে, সদর মডেল থানাধীন নগর খানপুরস্থ সিদ্ধিগোপাল জিউর আখড়া পূজা মন্ডপের প্রবেশ পথে আলোর ব্যবস্থা, ছিনতাই রোধে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার, গলাচিপা মোড়ে থাকা অটোরিক্সার স্ট্যান্ড রেললাইনের ওপারে মসজিদের সামনে নিয়ে যাওয়া, উকিলপাড়া পূজা মন্ডপের দর্শনার্থীদের নির্বিঘেœ চলাচলের স্বার্থে পূজোর দিন গুলোতে উকিলপাড়া পলি ক্লিনিকের সামনে থেকে মন্ডপের সম্মুখ পর্যন্ত ফুটপাতে সন্ধ্যার পর হকার বসতে না দেয়াসহ বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন পূজা উদযাপন কমিটির নেতৃবৃন্দরা।

সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মীর শাহীন পারভেজের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুর রাজ্জাক, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শংকর কুমার সাহা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কমলেশ সাহা, মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার শিপন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক উত্তম সাহা, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি কমান্ডার গোপিনাথ দাস, সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার, প্রচার সম্পাদক তপন ঘোপ সাধু, বন্দর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শংকর কুমার, উকিল পাড়া পূজা কমিটির সভাপতি কৃষ্ণ সাহা, রাম কানাই আখড়া পূজা কমিটির সভাপতি গনেশ গোপ সহ অনেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here