নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: রমজানের আগে টানা গরমে হাঁপিয়ে উঠেছিল নারায়ণগঞ্জবাসীর জীবন। এরপর ঘূর্র্ণিঝড় ‘মোরা’র প্রভাবে দেশব্যাপী বৃষ্টি প্রথমে জনজীবনে স্বস্তি এনে দিলেও দুদিনের টানা বর্ষনে নগরবাসীর ভোগান্তির শেষ নেই।
সপ্তাহের শেষ কর্ম দিবস বৃহস্পতিবার (১ জুন) ভোর থেকেই নারায়ণগঞ্জে থেমে থেমে কখনও হালকা আবার কখনও গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন অফিস, আদালত, স্কুল ও কলেজমুখীসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। নিয়মিত যানজটের পাশাপাশি বৃষ্টির কারণে পানি জমে শহরের বেশিরভাগ সড়কে ছিল দীর্ঘ যানজট।

নগরীর বিভিন্ন স্থানে ঘুরে সরেজমিনে দেখা যায়, অপেক্ষাকৃত নিচু স্থানগুলোতে হাঁটু পরিমাণ পানি জমে গেছে। সেই পানিতে ভাসছে নোংরা-আবর্জনা। বিশেষ করে নগরীর চাষাঢ়া, মিশন পাড়া, খানপুর, জামতলা, দেওভোগ, বাবুরাইলসহ বিভিন্ন এলাকা ও রাস্তায় পানি জমে জলজট সৃষ্টি হয়েছে। এতে যানবাহনে ভোগান্তি বেড়েছে।

এছাড়া নগরীর অধিকাংশ সড়কের পাশে সিটি কর্পোরেশনের ড্রেন ও ওয়াসার পানির সংযোগ লাইনসহ বিভিন্ন উন্নয়ন সংস্থার কাজ চলমান থাকায় খোঁড়া গর্তে পানি জমে সড়কের সঙ্গে সমান হয়ে গেছে। এসব গর্তে পড়ে দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন পথচারীরা। টানা বৃষ্টিতে একদিকে যেমন রাস্তায় পানি জমে চলাচলের অযোগ্য হয়ে যাচ্ছে, অপরদিকে রিক্সা ভাড়া বেড়েছে কয়েকগুণ। বাজারের নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মূল্যও বেড়ে গেছে বৃষ্টির উছিলায়। তাছাড়া ফুটপাতের হকারসহ নি¤œ আয়ের মানুষের আয়ের পথ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বৃষ্টি তাদের জন্য আশির্বাদ না হয়ে অভিশাপ হয়ে দেখা দিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here