নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ সদর থানার গোগনগর ৩নং ওয়ার্ডের দক্ষিন মসিনাবন্দ বাড়িরটেক এলাকার শাওন (১৭) নামের এক তাঁরকাটা মিল শ্রমিকের রহস্যজনক লাশ উদ্ধার করেছে সদর মডেল থানা পুলিশ।
বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) সকাল ১০টায় নারায়ণগঞ্জ ১’শ শয্যা বিশিষ্ট ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে গিয়ে জানতে পারে শাওন নামের এক ব্যাক্তির লাশ কিছুক্ষন আগে অত্র হাসপাতাল থেকে কে বা কাহারা নিয়ে গেছে। এরই সূত্র ধরে পরে পুলিশ গোগনগর ৩নং ওয়ার্ডের দক্ষিন মসিনাবন্দ বাড়িরটেক এলাকায় গিয়ে মৃত শাওনের বাড়ি থেকে তার লাশটি উদ্ধার করে। নিহত শাওন স্থানীয় এলাকার মোঃ বাবুল মিয়ার ছেলে।

নিহত শাওনের পিতা বাবুল মিয়া জানান, শাওন ফতুল্লা থানার কাশিপুর হাটখোলা এলাকায় মনির সিকদারের তারকাটা মিলে দীর্ঘদিন ধরে শ্রমিক হিসেবে কাজ করছেন। প্রতিদিনের মত শাওন সকাল ৮টায় তার কর্মস্থলে যোগদানের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। পরে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে একটি মোবাইল থেকে ফোন আসে শাওন গুরুতর অসুস্থ্য সে ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে আছে। এই খবর পাওয়ার পর হাসপাতালে গিয়ে শাওনের লাশ দেখতে পাই।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাওয়া নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) স্বপন কুমার দাস জানান, ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে এক ব্যাক্তির মৃত দেহ পরে আছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহত শাওনের লাশ সেখানে না পেয়ে তার বাড়ি গোগনগর গিয়ে লাশের সন্ধান পাই। ফতুল্লা থানার কাশিপুর হাটখোলা এলাকার মনির সিকদারের তারকাটা মিলের শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো শাওন। তারকাটা মিলের অন্যান্য শ্রমিকদের কাছ জানা য়ায় বৈদ্যুতিক শটসার্কিট থেকে নাকি শাওন গুরুতর আহত হয়েছিল। নিহতের মাথায় ও শরীরের দু একটি জায়গায় আঘাতের কিছু চিহ্ন পাওয়া গেছে। ময়না তদন্তের জন্য নিহতের লাশ উদ্ধার করে ১’শ শয্যা বিশিষ্ট নারায়ণগঞ্জ জেনারেল ভিক্টোরিয়া হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। প্রকৃত ঘটনাটি কি তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here