নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: হঠাৎ করেই আগুন লেগেছে সবজির বাজারে। ৩০ টাকার নীচে কোন ধরনের সবজি মিলছেনা নগরীর বাজার গুলোতে। কয়েক মাস ধরে বেশী দামে বিক্রি হওয়া বেগুন, পটল, ঝিঙা, ধুন্দল, করলা, বরবটি, ঢেঁড়স, টমেটোসহ প্রায় সব সবজির দাম শুক্রবার আরও একটু বেড়েছে।
শুক্রবার (২১ এপ্রিল) সকালে নগরীর দ্বিগুবাবুর বাজার, কালীর বাজার, মীনা বাজার, মাছুয়া বাজার  ঘুরে এবং ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, একদিনের ব্যবধানে শুক্রবার প্রায় সব সবজির দাম কেজিতে ৫ টাকার ওপর বেড়েছে।

ব্যবসায়ীরা জানান, বৃহস্পতিবার প্রতিকেজি পটল বিক্রি হয়েছিল ৩০-৩২ টাকায়। শুক্রবার এটি বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা কেজি দরে। অর্থাৎ একদিনের ব্যবধানে কেজিতে দাম বেড়েছে ৮ টাকার ওপরে।

একই অবস্থা অন্যান্য সবজিগুলোর ক্ষেত্রেও। ৪০-৫০ টাকায় বিক্রি হওয়া বেগুনের দাম বেড়ে হয়েছে ৬০ টাকা। ৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হওয়া ধুন্দল বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়।

প্রতিকেজি ঝিঙা বিক্রি হচ্ছে ৪৫-৫০ টাকায়। বৃহস্পতিবার এর দাম ছিল ৪০-৪২ টাকা। ৩০-৩৫ টাকায় বিক্রি হওয়া করলার দাম বেড়ে হয়েছে ৪০-৪৫ টাকা।

বেড়েছে টমেটা ও শসার দামও। ৩০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হওয়া টমেটোর দাম বেড়ে হয়েছে ৪০ টাকা। আর ২০-২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হওয়া শসা শুক্রবার বিক্রি হচ্ছে ৩০-৩৫ টাকায়। বরবটির দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬০ টাকায়। বৃহস্পতিাবর এর দাম ছিল ৫০-৫৫ টাকা। ঢেঁড়সের দাম ৩০ টাকা থেকে বেড়ে হয়েছে ৪০ টাকা। হালিতে কাঁচাকলার দাম বেড়েছে ৫ টাকার ওপরে। ২৫ টাকা হালিতে বিক্রি হওয়া কাঁচাকলা বিক্রি হচ্ছে ৩০-৩৫ টাকায়।

দাম বাড়ার তালিকায় পিছিয়ে নেই ডাটাও। ২০ টাকায় আটি বিক্রি হওয়া মোটা ডাটা শুক্রবার বিক্রি হচ্ছে ২৫-৩০ টাকায়। তবে কিছুটা কম দামে বিক্রি হচ্ছে চিকন ডাটাসহ শাক। ৫ থেকে ১০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে এই ডাটা ও শাক।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, পণ্যের সরবরাহ কম থাকায় দাম বেড়েছে। সব সবজিই আড়ত থেকে বেশি দামে কিনে আনতে হচ্ছে, যে কারণে বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে।

এদিকে দাম অনেকটাই স্থির আছে তেল, আটা, পেঁয়াজ, রসুন ও আলুর দাম। প্রতি কেজি খোলা সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ৮৫-৯০ টাকায়। বোতলজাত সয়াবিল তেল ১ লিটার বিক্রি হচ্ছে ১০০-১১০ টাকায়। আর ৫ লিটারের বোতলজাত তেল বিক্রি হচ্ছে ৪৯০ টাকা থেকে ৫১৫ টাকায়।

প্রতিকেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ১৫-১৮ টাকায়, দেশী পেঁয়াজ ৩০-৩৫ টাকা, আমদানী করা রসুন ১৮০-২০০ টাকা, দেশী রসুন ৭০-৮০ টাকা, খোলা আটা বিক্রি হচ্ছে ২৩-২৫ টাকা কেজি দরে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here