নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নতুন বছরের প্রথম দিন অর্থাৎ ২০১৮ সালের ১ জানুয়ারী নারায়ণগঞ্জ সরকারী মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য ২টি নতুন বাস দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান।
শনিবার (১১ নভেম্বর) সকাল ১১টায় কলেজ প্রাঙ্গনে নবীন বরণ অনুষ্ঠানে কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের দাবীর পরিপ্রেক্ষিতে তিনি এ ঘোষণা দেন।

এর আগে কলেজের নবীন শিক্ষার্থীদের মঞ্চে ডেকে তাদের কাছ থেকে কলেজে বিদ্যমান সমস্যা সম্পর্কে জানতে চান অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান। শিক্ষার্থীরা তাদের বক্তব্যে কলেজে যাতায়াতের সমস্যা, কলেজে প্রবেশ মুখে জলাবদ্ধতা, শ্রেনীকক্ষের সংকোলন, কম্পিউটার ল্যাব প্রতিষ্ঠা সহ বিভিন্ন সমস্যা ও দাবীর কথা তুলে ধরেন।

শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের দাবীর পরিপ্রেক্ষিতে সেলিম ওসমান আগামী ১ জানুয়ারী শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য দুটি বাস বরাদ্দ দেওয়ার ঘোষণা দিয়ে বলেন, আগামী ১ জানুয়ারী আমার ব্যক্তিগত অর্থায়ন এবং সরকারী অর্থায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মাধ্যমে আরো একটি বাস এনে মোট ২টি বাস প্রদান করা হবে। যদি সরকারী ভাবে বাস বরাদ্দ আনা সম্ভব না হয় তবে নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে সহযোগীতা নিয়ে দুটি বাস প্রদান করা হবে। এছাড়াও কলেজের দুটি ভবন প্রকৃত অর্থেই জরাজীর্ন। আমি কলেজ কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করবো নতুন ভবন নির্মাণের জন্য সরকারের বরাবর চিঠি দেন। আমি ডিও লেটার দিয়ে যত দ্রুত সম্ভব কলেজের জন্য নতুন ভবনের বরাদ্দ আনার চেষ্টা করবো।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তোমাদেরকে শুধু জিপিএ-৫ নামক সোনার হরিনের পেছনে ছুটলেই চলবে না। সবাই প্রথম হতে হবে এমন কোন কথা নাই। তোমরা সবাই নিজেরা নিজেদের অবস্থান থেকে শ্রেষ্ঠ। দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে তোমাদের নিজেদের স্থান থেকেই ভূমিকা রাখবে। প্রধানমন্ত্রীর ভিশন-২০২১ বাস্তবায়ন শুধু পুথিঁগত বিদ্যা দিয়ে সম্ভব নয়। বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্র গড়ার প্রধানমন্ত্রী স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হলে আমাদেরকে স্বাস্থ্য, শিক্ষা, কৃষি ও শিল্পায়নকে অগ্রাধিকার দিয়ে ভবিষ্যত পরিকল্পনা করতে হবে। তোমরা শিক্ষা গ্রহণের পাশাপাশি যতটুকু সম্ভব কৃষির প্রতি মননিবেশন করবে। প্রয়োজনে কলেজের ছাদ এবং তোমাদের বাসার ছাদে যতটুকু সম্ভব কৃষি ফলনের চেষ্টা করবে। আমরা সুস্বাস্থ্যের অধিকারী হয়ে সুশিক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে পরিকল্পিতভাবে কৃষি ও শিল্পায়নের সম্প্রসারন ঘটাতে পারলেই ভিশন ২০২১ বাস্তবায়ন আরো অনেক বেশি সহজতর হবে।

শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ইভটিজিং এর বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি বলেন, যখন তোমাদের সাথে এমন ঘটনা ঘটবে তখন তোমাদের সাথে থাকা মোবাইল দিয়ে তাদের ছবি তুলে রাখবে। পরে সেই ছবিটি আমার সাপোর্টাস ফোরামে পাঠিয়ে দিবে। এরপর দেখবে ওই বখাটে আর ওই রাতে বাসায় না ঘুমিয়ে থানায় ঘুমাবে।

কলেজের অধ্যক্ষ বেদৌরা বিনতে হাবীব এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের সহ ধর্মিনী মিসেস নাসরিন ওসমান। আরো উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ রুমন রেজা, সরকারী মহিলা কলেজের উপাধক্ষ্য শাহিন সুলতানা, সাবেক অধ্যক্ষ শিরীন বেগম, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ নারায়ণগঞ্জ জেলা সাবেক সভাপতি হাবীবুর রহমান চৌধুরী প্রমুখ।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here