নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: আগামী ২ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে মুসলমান সম্প্রদায়ের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা বা কোরবানীর ঈদ। মহান আল্লাহর নৈকট্য লাভের আশায় এদিন মুসলমানরা পশু কোরবানী দিয়ে থাকেন।
আর তাই নারায়ণগঞ্জ জেলার বিভিন্ন স্থানে এখন বেশ জমজমাট ভাবে গড়ে উঠেছে অস্থায়ী পশুর হাট।

শুক্রবার (২৫ আগষ্ট) নগরীর সৈয়দপুর শীতলক্ষ্যা কোল্ড স্টোরেজ মাঠ, বন্দর সোনা কান্দা পশুর হাট ঘুরে দেখাগেছে, বিভিন্ন স্থান থেকে বপারীরা গরু-ছাগল নিয়ে আসছেন হাট গুলোতে।

তবে ক্রেতা সমাগম এখনো না ঘটলেও হাটগুলোতে প্রতিদিনই দর্শনাথীদের সংখ্যা বাড়ছে।

বন্দর সোনাকান্দা অস্থায়ী পশুর হাটে আসা সাদ্দাম হোসেন নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে জানান, ‘সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় সন্তানকে নিয়ে পশুর হাটে এসেছেন গরু দেখতে। কোরবানীর প্রায় সপ্তাহখানেক বাকী আছে, তাই ছুটিরদিনে হাট গুলো ঘুরে মূল্য যাচাই করছি।’

এদিকে, সড়কপথের পাশাপাশি নৌপথেও শীতলক্ষ্যা নদী দিয়ে জেলার বিভিন্ন হাটে কোরবানীর পশু নিয়ে যাচ্ছেন বেপারীরা। নদী ঘাটের সন্নিকটে হাট হওয়ার সুবাধে ঘাটের পাশে মাইক লাগিয়ে স্ব-স্ব হাটে বেপারীদের দৃষ্টি আকর্ষনে রীতিমত মাইকিং করে যাচ্ছে হাটের ইজারাদাররা।

তবে নৌপথে কেউ যেন পশুর দড়ি নিয়ে টানাটানি করতে না পারে সেজন্য বেশ তৎপর রয়েছে র‌্যাব ও পুলিশ প্রশাসন।

বন্দর সোনাকান্দা হাটের দায়িত্বপ্রাপ্ত এক কর্মকর্তা জানান, ‘এখন হাটে ক্রেতার চেয়ে দর্শনার্তীদের সংখ্যাই প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। ক্রেতারা মূলত এখন হাটে এসে পছন্দের পশু খোঁজার চেষ্টা করছেন।’

তবে আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর থেকেই বিক্রি বেশ জমে উঠবে বলে প্রত্যাশা করেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here