নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: হঠাৎ বেসামাল হয়ে পড়া চালের দাম এবার কমতে শুরু করেছে। পাইকারী পর্যায়ে সব ধরনের চালে কেজিতে ৩ থেকে ৪ টাকা পর্যন্ত কমেছে। তবে মিল ও পাইকারী বাজারে চালের দাম কমলেও খুব বেশী প্রভাব পড়েনি খুচরা পর্যায়ে। ফলে স্বস্তি ফেরেনি ভোক্তাদের মাঝে।
খুচরা বিক্রেতারা বলছেন, পাইকারী বাজারে সবেমাত্র চালের দাম কমানো হয়েছে। আমরাও চালের দাম কমিয়েছি। ইতোমধ্যে সব ধরনের চালে ২ টাকা পর্যন্ত দাম কমেছে। আর আগের চালগুলো বিক্রি শেষ হলে নতুন চাল আনার পর দাম আরও কমবে।

শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) নগরীর মন্ডলপাড়ায় চালের পাইকারী বাজার ও দ্বিগুবাবুর বাজারে খুচরা দোকান গুলো ঘুরে দেখা গেছে, সপ্তাহের ব্যবধানে সব ধরনের চালের দাম ১-২ টাকা পর্যন্ত কমেছে।

মোটা স্বর্ণা চাল ২ টাকা কমে প্রতি কেজি ৪৬ টাকা, পারিজা চাল ৪৪ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া মিনিকেট (ভালো মানের) ২ টাকা কমে ৫৬-৫৮ টাকা, মিনিকেট (সাধারণ) ৫৪-৫৬ টাকা, বিআর২৮ ৫০ টাকা, সাধারণ মানের নাজিরশাইল ৫২ টাকা, উন্নত মানের নাজিরশাইল ৫৪ টাকা, পাইজাম চাল ৪৮-৫০ টাকা, বাসমতি ৫৪ টাকা, কাটারিভোগ ৭৪-৭৬ টাকা এবং পোলাও চাল (পুরাতন) ১০০ টাকা, (নতুন) ৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here