নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনাকে বৃদ্ধাঙ্গলি দেখিয়ে নারায়ণগঞ্জে এখনো অবাধে চলছে কোচিং সেন্টারগুলো। আসন্ন এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে ২৯ মার্চ থেকে কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয় সরকার।
এসএসসি পরীক্ষা নির্বিঘœ করতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এমন সিদ্ধান্তের কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। বৈঠকে বিজি প্রেস, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধি এবং বিভিন্ন বোর্ডের চেয়ারম্যানরা উপস্থিত ছিলেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এমন নির্দেশনা কাগুজে থাকলেও নারায়ণগঞ্জে বাস্তবে এর প্রতিফলন দেখা যায়নি।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ২৯ মার্চ থেকে এইচএসসি পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে। আর কোচিং সেন্টার চলছে কী না দেখাভালের দায়িত্ব পড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপর। কিন্তু নারায়ণগঞ্জে কোচিং সেন্টারগুলো আগের মতোই দিব্যি চলছে। কোন বাধা বিপত্তি নেই। কোথাও কোচিং সেন্টার বন্ধ করার খবর পাওয়া যায়নি। এমনকি পুলিশ কোথাও অভিযান চালিয়ে এমন খবরও পুলিশের পক্ষ থেকে আসেনি। বরং পরীক্ষাকে সামনে রেখে কোন কোন কোচিং সেন্টারে ভিড় আরও বেড়েছে।

নারায়ণগঞ্জের কয়েকটি এলাকায় ঘুরে এমন চিত্রই দেখা গেল। বিশেষ করে নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়ায় কলেজ রোড, মাসদাইর, গলাচিপা, দেওভোগ, আমলাপাড়া, ডন চেম্বার, মিশনপাড়াসহ বিভিন্ন এলাকার কোচিং সেন্টারগুলো দিব্যি প্রশাসনের নাকের ডগায় চালিয়ে যেতে দেখা গেছে। সারাদিনে পুলিশ কিংবা শিক্ষা অধিদপ্তরের কোন অভিযানের খবর পাওয়া যায়নি।

তবে মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অমান্য করে যেসকল অবৈধ কোচিং সেন্টার গুলো খোলা রাখা রয়েছে, সেগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে শুক্রবার থেকে নিয়মিত মোবাইল কোর্ট পরিচালনার কথা জানিয়েছেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মো: আসাদুজ্জামান।

তিনি নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে জানান, ‘পরীক্ষার প্রশ্ন পত্র ফাঁস রোধে নির্দেশ অমান্যকারী কোচিং সেন্টার গুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে শুক্রবার থেকে এইচএসসি পরীক্ষা শেষ হওয়ার আগমুহুর্ত পর্যন্ত বিভিন্ন এলাকায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here