নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: গত কয়েক দিনের বৃষ্টি, কালবৈশাখী ঝড় আর বজ্রপাতে বিপর্যস্ত নারায়ণগঞ্জবাসী।
বুধবার (২ মে) বিকেলে হওয়া ঝড় বৃষ্টিতে ছুটির দিনে স্বস্তির পাশাপাশি ভোগান্তিতে ফেলেছে নগরবাসীকে। ঝড়ের আগে নারায়ণগঞ্জের আকাশ হয়ে যায় রাতের মতো অন্ধকার। ঘন কালো মেঘে ঢেকে যায় দিনের আলো। এই ঘনকালো মেঘকে বলা হয় বজ্রমেঘ। ঘন ঘন বজ্রমেঘ সৃষ্টির কারণে বজ্রপাত বেড়েছে বলে মনে করেন আবহাওয়াবিদরা।

এদিকে পবিত্র শবে বরাতের পরদিন ছুটি থাকায় বৃষ্টি যেমন অকেকের কাছে স্বস্তি হয়ে দেখা দিয়েছিলো, তেমনি নারায়ণগঞ্জের নি¤œ এলাকার মানুষের অবর্ণনীয় দূর্ভোগের কারনও হয়ে উঠেছিলো। তাছাড়া স্বল্প আয়ের মানুষ জীবীকার টানে রাস্তায় বেড়িয়ে পরেছে চরম ভোগান্তিতে। শহরে গন পরিবহন ছিলো একেবারেই কম। আর সুযোগ বুঝে রিক্সাওয়ালারাও দ্বিগুণ তিনগুণ ভাড়া দাবী করেছে।

আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, লঘুচাপের বর্ধিতাংশ ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। উত্তর আন্দামান সাগর ও আশেপাশের এলাকায় লঘুচাপ বিরাজ করছে। এ কারণে বজ্রমেঘের ঘনঘটা বাড়ায় আজ বুধবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া এবং বিজলী চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে মাঝারি ধরনের ভারি বর্ষণ ও শিলাবৃষ্টিও হতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here