নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: যেন অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি, একটি নয়, দুটি নয়, অভিনব উপায়ে প্যাকিং করা একে একে ৫শ’ পিস ইয়াবা পঞ্চাসোর্ধ্ব এক নারীর পেটের ভেতর থেকে উদ্ধার করলো নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশ!

বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) রাতে ডিবি এসআই মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে এসআই আবু সায়েমসহ সঙ্গীয় ফোর্স ফতুল্লা মডেল থানাধীন কাশীপুর ইউনিয়নের বাঁশমুলি পশ্চিম দেওভোগ শেষ মাথা এলাকায় অভিযান চালিয়ে বাসা থেকে এই নারীকে গ্রেফতার করেন।

গ্রেফতাকৃত সুফিয়া খাতুন (৫৫) পশ্চিম দেওভোগস্থ মাস্টারের বাড়ীর ভাড়াটিয়া মৃত আনোয়ার মিয়ার স্ত্রী।

গ্রেফতারকৃত নারীর দেয়া তথ্যমতে ডিবির এসআই মিজানুর রহমান জানান, ‘সুফিয়া খাতুন আগে ফেন্সিডিলের ব্যবসা করতো। কয়েকমাস পূর্বে ৩শ’ বোতল ফেন্সিডিলসহ কুমিল্লায় গ্রেফতার হওয়ার পর সে ফেন্সিডিলের ব্যবসা বন্ধ করে ইয়াবার ব্যবসা শুরু করে। টেকনাফ থেকে ট্রেনিং নিয়ে প্রথমে সে অভিনব উপায়ে পেটের মধ্যে ৭শ’ পিস করে ইয়াবা আনতে শুরু করে। এরপর পর্যায়ক্রমে ২ হাজার পিস ইয়াবা পেটের মধ্যে করে নারায়ণগঞ্জ নিয়ে এসে বিভিন্ন স্থানে পাইকারী দরে বিক্রি করতো।’

তিনি আরো জানান, ‘পেটের ভিতর ইয়াবা বহন করে অন্যত্র বিক্রির উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছেন এমন সংবাদের ভিত্তিতে প্রথমে সুফিয়া খাতুনকে তার বাসা থেকে আটক করা হয়। এরপর ডিবি কার্যালয়ে এনে তাকে প্রচুর পরিমানে পানি পান করিয়ে পেটের ভিতর লুকিয়ে রাখা প্রতি প্যাকেটে ৫০ পিস করে থাকা মোট ৫শ’ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।’

এব্যাপারে ফতুল্লা মডেল থানায় মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দায়ের হয়েছে বলে জানান ডিবির এসআই আবু সায়েম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here