নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন, পরিবেশ অধিদপ্তর এবং মাটি অর্গানিক কোম্পানীর যৌথ উদ্যোগে পঞ্চবটীতে নির্মিত কম্পোষ্ট প্ল্যান্ট পরিদর্শন করেছেন ইন্দোনেশিয়ার একটি প্রতিনিধি দল।
বুধবার (৬ নভেম্বর) বিকেলে সদর উপজেলাধীন পঞ্চবটীতে দুই একর জায়গার উপর সিডিএম প্রকল্পের আওতায় নির্মিত কম্পোষ্ট প্ল্যান্টটি ঘুরে দেখেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা।

এসময় কম্পোষ্ট প্ল্যান্টের বিষয়ে প্রতিনিধি দলের সদস্যদের অবগত করেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এএফএম এহতেশামূল হক এবং পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো: আবুল কালাম আজাদ।

এহতেশামূল হক প্রতিনিধি দলের সদস্যদের জানান, ‘মূলত নগরীর গৃহস্থালী পচনশীল বর্জ্য দিয়ে জৈব সার তৈরীর লক্ষ্যে এই কম্পোষ্ট প্ল্যান্ট নির্মান করা হয়েছে। আগামী ২০১৮ সালের জানুয়ারী মাস থেকে পরিবেশ অধিদপ্তরের সহায়তায় নাসিকের ১৩ নং ওয়ার্ড থেকে পচনশীল বর্জ্য সংগ্রহের পাইলট প্রকল্পের কাজ শুরু হবে। এজন্য প্রত্যেক বসত বাড়ীর সামনে পচনশীল বর্জ্য সংগ্রহের জন্য একটি করে সবুজ বীন এবং অপচনশীল বর্জ্য সংগ্রহের জন্য হলুদ বীন স্থাপনের কাজ চলছে।’

ইন্দোনেশিয়ার প্রতিনিধি দলের সাথে পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন, বর্জ্য কনসার্নের পরিচালক ইফতেখার এনায়েত উল্লাহ, ইউএন-এসক্যাপের প্রকল্প পরিচালক রাহুল ভাসওয়ানী, সায়েদ জুবায়ের আহমেদ, মাটি অরগানিক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খায়রুল আলম, পরিবেশ অধিদপ্তরের কেমিষ্ট নয়ন আহমেদ, নাসিকের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা মো: আলমগীর হিরণ।

গৃহস্থালী বর্জ্য দ্বারা জৈব সার উৎপাদনের এমন প্ল্যান্ট দেখে ইন্দোনেশিয়ার টিম অভিভূত হয়েছেন বলে নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে জানান, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এএফএম এহতেশামূল হক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here