নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জের কোন আইনজীবীকে ধর্ম আবমাননার মামলায় অভিযুক্ত রফিউর রাব্বীর পক্ষে না দাঁড়ানোর আহবান জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা হেফাজতের আমীর মাওলানা আবদুল আউয়াল।
শুক্রবার (৫ মে) ডিআইটি মসজিদে পবিত্র জুমা’র নামাজের বয়ানে এ আহবান জানিয়েছেন।

পবিত্র জুমা’র নামাজের বয়ানে নারায়ণগঞ্জ জেলা হেফাজতের আমীর মাওলানা আবদুল আউয়াল বলেন, বাম পন্থীদের উকিলের অভাব হয় না। এ ধরনের মুনাফেক নাস্তিকের পক্ষে দাঁড়ানো কোন উকিলের উচিত হবে না। তাই উকিল ভাইদের প্রতি অনুরোধ থাকবে, এই নাস্তিকের পক্ষে দাঁড়িয়ে তাকে আইনের ফাঁক দিয়ে বেঁচে যাওয়ার সুযোগ করে দিবেন না।

মাওলানা আবদুল আউয়াল আরো বলেন, এদেশে ইসলামী হুকুমত কায়েম নেই। থাকলে নাস্তিক রফিউর রাব্বী এতোদিন বেঁচে থাকতো না। এদেশের আইন প্রণয়ণ করেছে বৃটিশরা। তাই ইসলাম অবমাননার সর্বোচ্চ শাস্তি মাত্র এক বছর কারাদন্ড। এই সাজাটা খুবই হালকা। ধর্ম অবমাননার মতো অপরাধের শাস্তি মাত্র এক বছর কারাদন্ড হতে পারে না। আমরা এই আইনের সংশোধন চাই। ধর্ম অবমাননার শাস্তি হওয়া উচিত ফাঁসি। এই অপরাধে দু-একটাকে ঝুলিয়ে দিলে, আর কেউ এ অপরাধ করার সাহস পেতো না।

তিনি বলেন, আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল, তাই এখনও শান্ত আছি। কিন্তু একটা নাস্তিক কুলাঙ্গার আল্লাহকে গালি দিয়ে নাকের ডগায় ঘুরে বেড়াবে, তা আমরা কোনভাবেই মেনে নেবো না। আইনের কাছে আমরা সুবিচার পাবো কিনা জানি না, তবে এসব নাস্তিকদের বিরুদ্ধে আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। নাস্তিক রফিউর রাব্বীকে আল্লাহ’র কাছে তওবা করে মাফ চাইতে হবে, সেই সাথে জাতির কাছেও ক্ষমা চাইতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here