নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: আল্লাহকে নিয়ে কটুক্তিকারী নাস্তিক রফিউর রাব্বী বিচার নারায়ণগঞ্জের মাটিতেই হবে বলে হুঁশিয়ারী করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ আলহাজ¦ একেএম শামীম ওসমান।
শুক্রবার (২১ এপ্রিল) বাদ জুম্মা শহরের ডিআইটি জামে মসজিদের সামনে ধর্ম নিয়ে রফিউর রাব্বীর কটুক্তির প্রতিবাদে নারায়ণগঞ্জের সর্বস্তরের তৌহিদী জনতার ব্যানারে আয়োজিত বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশে ধর্ম অবমাননাকারীকে হুঁশিয়ার করেন তিনি।

শামীম ওসমান বলেন, আমার কাছে আমার এমপি, মন্ত্রীত্ব বড় না। আমি একজন মুসলিম এটাই আমার কাছে সবচেয়ে বড় কথা। আমরা এখানে রাজনীতি করতে আসি নাই, ধর্মের বিরুদ্ধে কটুক্তিকারীদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে এসেছি। তাই আমি স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই, ধর্ম নিয়ে কটুক্তিকারীদের বিরুদ্ধে আমাদের মোকাবেলা করতে হবে না, আমার হাতের একটা চুটকীতেই যথেষ্ট। রাষ্ট্রদোহীতার মামলায় ইসলামের ব্যাপারে কারো সাথে আপোষ করবোনা।

তিনি আরো বলেন, জঙ্গিবাদ মুসলমানদের নয়, ইহুদীদের সৃষ্টি। কেবল দাঁড়ি টুপি থাকলেই মুসলমান হওয়া যায় না।
হেফাজতের সাথে প্রধানমন্ত্রীর সখ্যতা নিয়ে সমালোচনাকারীদের কঠোর সমালোচনা করে শামীম ওসমান বলেন, তাসলিমা নাসরীন আমার প্রধানমন্ত্রীকে জ্ঞান দেন। তিনি নাকি শঙ্কিত। কেন? কারণ প্রধানমন্ত্রী আলেম ওলামাদের নিয়ে বসেছেন।
হেফাজতে ইসলাম প্রসঙ্গে শামীম ওসমান বলেন, সেই ৫ মে ঢাকার মতিঝিলে হেফাজতে ইসলাম কোন বিশৃংখলা করেন নি। করেছিল জামায়াত শিবির।
তিনি আরো বলেন, কেউ কেউ বলেছেন শামীম ওসমান নাকি হেফাজতের হয়ে গেছে। আমি বলতে চাই শামীম ওসমান আর হেফাজতের মধ্যে কোন অমিল নাই।
ডিআইটি রেলওয়ে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব ও হেফাজতে ইসলাম জেলা আমীর মাওলানা আব্দুল আউয়াল বলেন, আমরা মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য দোয়া করলেই আমরা নাকি আওয়ামীলীগার হয়ে যাই। কিন্তু আমি বলতে চাই মুক্তিযোদ্ধাদের অবদানেই আজ দেশ স্বাধীন হয়েছিল। তাই তাদের জন্য দোয়া করা দেশবাসীর কাম্য।
ডিআইটি রেলওয়ে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব ও হেফাজতে ইসলাম জেলা আমীর মাওলানা আব্দুল আউয়ালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এড. আবু হাসনাত মো: শহিদ বাদল, জেলা জাতীয়পার্টির আহবায়ক আবুল জাহের, নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এড. আবুল কালাম আজাদ বিশ^াস, ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও কাশীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ এম সাইফুল্লাহ বাদল, সাধারন সম্পাদক ও বক্তাবলী ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ এম শওকত আলী, সহ-সভাপতি ও এনায়েতনগর ইউপি চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান, বন্দর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ¦ এম এ রশীদ, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক হাজী ইয়াছিন, সোনারগাঁ থানা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এড. সামছুল ইসলাম ভূইয়া, আবদুল কামাল উদ্দিন দাঈমী, মাওলানা জাকির হোসেন, মাওলানা সিরাজুল ইসলাম মনির, মাদানীনগর মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মুফতী বশিরউল্লাাহ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সাবেক কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা সামিউল্লাহ মিলন, মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক শাহ নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, শহর যুবলীগ সভাপতি শাহাদাত হোসেন সাজনু, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি নাজমুল আলম সজল, কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মনিরুল আলম সেন্টু, কাশীপুর ইউপি আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী আইয়ুব আলী, জেলা পরিষদের সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাফায়েত আলম সানি, সাধারন সম্পাদক মিজানুর রহমান সুজন প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here