নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ ঐতিহ্য রক্ষা সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক এডভোকেট এ.বি. সিদ্দিক এর নের্তৃত্বে ৯ সদস্যের প্রতিনিধি দল নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়ার নিকট রেল ষ্টেশন উচ্ছেদ এর প্রস্তাব প্রত্যাহারের দাবীতে একটি স্মারক লিপি প্রদান করেছেন।
মঙ্গলবার (১ আগষ্ট) দুপরে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে যেতে তারা এই স্মারকলিপি প্রদান করেন।

এতে উল্লেখ করা হয়, বৃটিশ ভারতে বিশেষ উন্নয়ন ধর্মী পদক্ষেপ নারায়ণগঞ্জ রেল ষ্টেশন এক সময়ে নারায়ণগঞ্জকে প্রাচ্যের ডান্ডি খ্যাতি প্রাপ্তিতে বিশেষ অবদান রেখেছিল। সারা ভারতের ট্রেন সার্ভিস এখান থেকে শুরু হতো। একে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দর গড়ে উঠেছিল যার অর্থ নৈতিক প্রভাব নারায়ণগঞ্জকে উচ্চ আসনে বসিয়েছিল। কালের পরিক্রমায় রাজনৈতিক কারণে এই প্রধান বাণিজ্যিক কেন্দ্রের প্রভাব কমলেও এখনো শেষ হয়ে যায়নি। আমাদের রাজনৈতিক শ্রদ্ধেয় নেতারা এখনো আশ্বাস দিয়ে থাকেন নারায়ণগঞ্জ কে তার অতীত ঐতিহ্য ফিরে পেতে হবে। শুধু রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের অপেক্ষা। এই সম্ভাবনার বিপরীতে রেল লাইন নারায়ণগঞ্জকে যানজট সৃষ্টির অন্যতম প্রধান কারণ “অজুহাত” দিয়ে এটি উচ্ছেদ করার প্রস্তাব বাস্তবে “অসত্য ও জনবিচ্ছিন্ন”। প্রকৃত কারন প্রশাসনিক অব্যবস্থাপনা । যানজট নিয়ে আমরা অনেক দিন থেকে আন্দোলন সহ পর্যবেক্ষন করে আসছি। শহরের চাষাড়ায় যানজট সৃষ্টি হয়ে তার বিস্তৃতি লাভ করে বঙ্গবন্ধু রোড, নবাব সলিমুল্লাহ রোড, ফতুল্লা রোড সহ লিংক রোডে। চাষাড়ার গোল চত্তরের চারদিকে বৈধ-অবৈধ সমস্ত প্রকারের পরিবহনের অবৈধ অবস্থান সহ ফুট পাথ দখল এবং অতিসন্নিকটে প্রায় রাস্তার উপর জেলা পরিষদের ডাক বাংলা এবং পুলিশ ফাড়ির অবস্থান। এই ডাক বাংলা ও পুলিশ ফাড়ির আংশিক সরিয়ে ফেলে রাস্তা প্রশস্ত করার দীর্ঘ আন্দোলন ও বৈঠক করেও এখন পর্যন্ত কোন সুরাহা হয় নাই। যদিও পূর্বের অবস্থান থেকে সরে এসে মাননীয় সংসদ সদস্য কয়েকদিন পূর্বে এই স্থাপনা গুলি সরিয়ে ফেলার গুরুত্ব দিয়েছেন। পাশাপাশি আমরা লিখিত ভাবে জানিয়েছি যে, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল সরিয়ে চাষাড়ার অদুরে স্থানান্তর করলে , সেই সাথে শহরে আন্তঃ জেলা বাস প্রবেশ নিষিদ্ধ করলে, ট্রাক রাত ৯.০০ টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত শহরের অভ্যন্তরে প্রবেশ সীমিত রেখে ও যত্রতত্র বৈধ অবৈধ যানবাহন থামতে না দিলে এবং ট্রাফিক পুলিশ সহ প্রশাসন আন্তরিক হলে নারায়ণগঞ্জে যানজটের শহর থাকার কোন কারণ থাকবে না। দেশে এবং বিদেশে প্রত্যেক শহরের মধ্যে ট্রেন চলাচল অতি সাধারন ব্যাপার । নারায়ণগঞ্জ ঐতিহ্য রক্ষা সংগ্রাম কমিটি হাজীগঞ্জ দূর্গ, বিবি মরিয়মের সমাধি, সোনাকান্দা দূর্গ ও পানাম নগরী সহ সমস্ত প্রাচীন ঐতিহ্য রক্ষার আন্দোলন অব্যাহত রাখার অঙ্গীকারবদ্ধ। স্মরন যোগ্য, প্রস্তাব মত রেল ষ্টেশন চাষাড়ায় স্থানান্তর করলে কয়েক লক্ষ দরিদ্র, নি¤œবৃত্ত লোককে চাষাড়ায় অন্যযানবাহনে আসতে হলে কম পক্ষে অতিরিক্ত ৫০/৬০ টাকা ব্যয় করতে হবে। সেই সাথে কয়েকশত যানবাহন প্রয়োজন হবে। যার প্রভাব যানজট আরও প্রকট হতে বাধ্য।সুতরাং উপরোক্ত বিষয়গুলি বিবেচনায় এনে অতি দ্রুত নারায়ণগঞ্জ রেল ষ্টেশন উচ্ছেদের প্রস্তাব প্রত্যাহার করে পরিবেশ বান্ধব যাতায়াত ব্যবস্থা রেল লাইন ও ষ্টেশনের অবস্থান যথাস্থানে রাখার আকুল আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতিনিধি দলে ছিলেন- সানোয়ার তালুকদার, এডঃ সিরাজুল ইসলাম, মোঃ তারিক বাবু, হাফিজুল হক, আব্দুল জব্বার ভূইয়া, এডঃ জাহিদুর রহমান, মোঃ ওবাইদুর রহমান লিটন, মোঃ আসাদুল হক সরকার ও মোঃ বিল্লাল হোসেন ।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here