নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের প্রকোপে নাকাল সারা বিশ্ব। করোনার সংক্রমণ রোধে দেশব্যাপী চলছে লকডাউন আর এই লকডাউনে চরম কষ্টে জীবন যাপন করতে হচ্ছে নিম্ন আয়ের মানুষকে। নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের অসহায় মানুষের পাশে দেখা মিলেনি সাবেক মন্ত্রী রেজাউল করিমকে বরং এই চরম দুর্দনে সোনারগাঁয়ের সাধারণ মানুষের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আজহারুল ইসলাম মান্নান এবং জেলা যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক সহিদুর রহমান স্বপন। করোনার প্রাদূর্ভাব শুরুর পর থেকেই তারা সোনারগাঁয়ের সাধারণ মানুষকে সচেতন করার পাশাপাশি কর্মহীন বেকার নিম্ন আয়ের মানুষকেও করে যাচ্ছেন সাহায্য সহযোগিতা। কিন্তু এই দুই মাসে সোনারগাঁয়ের সাবেক এমপি ও মন্ত্রী রেজাউল করীমকে কোথাও দেখা যায়নি এক মুঠো চাল কাউকে বিতরণ করতে।

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ শুরু পর থেকেই বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আজহারুল ইসলাম মান্নান ও নারায়ণগঞ্জ জেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক সহিদুর রহমান স্বপন তাদের ব্যক্তিগত উদ্যোগে সোনারগাঁয়ের কাচপুরস্থ নিজ বাসভবনে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরী করছেন এবং নিজস্ব উদ্যোগেই সোনারগাঁয়ের ১০টি ইউনিয়নের সাধারণ মানুষের মাঝে বিনামূল্যে বিতরণ করছেন। তাছাড়া সোনারগাঁয়ের বিভিন্ন এলাকায় জীবানুনাশক স্প্রে করছেন নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবীদের সাথে নিয়ে, এলাকার মানুষদের মাঝে তৈরী করছেন জনসচেতনতা। নিজ উদ্যোগে অসহায় কর্মহীন সোনারগাঁবাসীর মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন তারা যা প্রশংসিত হচ্ছে সোনারগাঁয়ের সর্বত্র।

অপরদিকে সোনারগাঁ থেকে বিএনপির প্রতীকে এমপি নির্বাচিত হওয়া রেজাউল করীম পরবর্তীতে মন্ত্রী হয়েছিলেন। বিএনপির সুদিনের সুযোগে কোটি কোটি টাকা কামানো এই প্রভাবশরিী নেতা গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন কিন্তু স্থানীয় গ্রহনযোগ্যতার কারনে বিএনপির মনোনয়ন পেয়েছিলেন আজহারুল ইসলাম মান্নান। এরপর থেকেই কিছুটা আড়ালে চলে যান রেজাউল করীম আর করোনা ভাইরাসের প্রকোপ শুরুর পর থেকেতো তাকে আর খুঁজেও পাওয়া যাচ্ছে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here